কিশোরীকে বিয়ে করতে ব্যর্থ জোরপূর্বক ধর্ষণ
কিশোরীকে বিয়ে করতে ব্যর্থ জোরপূর্বক ধর্ষণ

কিশোরীকে বিয়ে করতে ব্যর্থ জোরপূর্বক ধর্ষণ

অনলাইন ডেস্ক

বিয়ে করতে ব্যর্থ হয়ে কিশোরীকে  জোরপূর্বক ধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বরগুনা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে হুমায়ুন কবির হিমু (৩২) নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন কিশোরীর বাবা। ট্রাইব্যুনালের বিচার মো. হাফিজুর রহমান বুধবার মামলাটি গ্রহণ করে আদেশের জন্য রেখেছেন।

হিমু বরিশাল জেলার কাজিরহাট ইউনিয়নের পশ্চিম রতনপুর গ্রামের মোতালেব মাস্টারের ছেলে।

 

অভিযোগে জানা যায়, হিমু ওই ভুক্তভোগীদের আত্মীয়। গত ৩০ সেপ্টেম্বর হিমু কিশোরীর বাড়িতে বেড়াতে আসে। কিশোরীকে হিমু বিয়ে করার জন্য প্রস্তাব দেয়। কিশোরীর বাবা-মা বিয়েতে রাজি না হলে হিমু প্রতিশোধপরায়ণ হয়ে উঠে।

৩১ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা ৬টার দিকে বাদীর বসতঘরে কেউ না থাকার সুযোগে কিশোরীকে ভয়ভীতি দেখিয়ে হিমু জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এ সময় কিশোরীর চিৎকারে লোকজন চলে আসে। তখন হিমু পালিয়ে যায়।  

আরও পড়ুন


সেদিন আমার কাছে আসলে ২ বাচ্চার মার কাছে ধরা খেতে হতো না: সুবাহ

ব্রিটিশ পার্লামেন্টে মাওলানা আজহারীকে নিয়ে কী আলোচনা হল?

জাতীয় চার নেতাকে আড়ালে রেখে সোনার বাংলা গড়া যাবে না

কথিত স্ত্রী ঝর্ণার করা ধর্ষণ মামলায় মাওলানা মামুনুল হকের বিচার শুরু


কিশোরীর বাবা বলেন, আমার মেয়েকে হিমু বিয়ে করার জন্য দীর্ঘদিন যাবত প্রস্তাব দিতে থাকে। আমরা হিমুর সঙ্গে বিয়ে দিতে রাজি হয়নি। ৩০ সেপ্টেম্বর হিমু বেড়াতে আসে আমাদের বাড়ি। পরের দিন আমরা পাশের বাড়ি যাই। হিমু ওই সময় আমাদের বাড়িতে ছিল না। হঠাৎ আমার ঘরে হিমু ফিরে এসে আমার মেয়েকে একা পেয়ে খুনের ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়।  

এ বিষয়ে কথা বলতে হিমুর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।   

news24bd.tv/ কামরুল 

;