বেনাপোলে প্রবেশের অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে আছে প্রায় সাত হাজার ট্রাক

বেনাপোলে প্রবেশের অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে আছে প্রায় সাত হাজার ট্রাক

Other

দেশের সর্ববৃহৎ স্থলবন্দর বেনাপোলের ওপারে ভারতের বনগাঁ কালীতলা পার্কিংয়ে বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় আমদানি পণ্য নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে প্রায় সাত হাজার ট্রাক। পণ্যবোঝাই একেকটি ট্রাক এক মাসেরও বেশি সময় ধরে পড়ে আছে পার্কিংয়ে।  

দীর্ঘদিন ধরে এ অবস্থা চললেও ভারতীয় রাজ্য বা কেন্দ্র সরকারের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কোনো কার্যকর ভূমিকা নিতে দেখা যায়নি। ধীরে ধীরে শক্তিশালী হয়ে উঠছে সিন্ডিকেট দৌরাত্য।

বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে পন্য আমদানি ও রপ্তানির ক্ষেত্রে বাংলাদেশে পন্য বোঝাই ট্রাক প্রবেশে তৈরি করা হচ্ছে ইচ্ছাকৃত দীঘসূত্রীতা । বাংলাদেশে একটি পন্য বোঝাই ট্রাক প্রবেশ করতে সময় লেগে যায় ৩০ থেকে ৩৫ দিন ।  

ফলে সীমান্তের ওপারে বনগাঁ কালীতলা পাকিং এ অপেক্ষমান থাকা শত শত ট্রাক থেকে আদায় করা হচ্ছে লাখ লাখ টাকার চাঁদা। আর এ চাঁদা আদায়ে গড়ে উঠেছে শক্তিশালী সিন্ডিকেট । যে কয় দিন পন্যবাহী ট্রাক পার্কিং এ থাকবে তার টাকা ভারতীয় রপ্তারিকারকরা আদায় করে নিচ্ছে বাংলাদেশি আমদানিকারকদের কাছ থেকে।

প্রতিদিন ট্রাক প্রতি পার্কিং খরচ নেওয়া হচ্ছে ৫০০ থেকে এক হাজার টাকা। কবে কোন ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশ করবে তা তারাই নির্ধারণ করে দেয়ালে কাগজ সেঁটে দিচ্ছে । এতে দীর্ঘদিন পড়ে থাকার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে আমদানীকৃত পণ্য। শিল্পের কাঁচামাল সময়মতো কারখানায় পৌছাঁতে না পেরে মারাত্বক ভাবে ব্যহত হচ্ছে শিল্প কার্য়ক্রম।

ট্রাক থেকে মোটা অঙ্কের চাঁদা আদায় ও পণ্য প্রবেশে দীর্ঘসূত্রতার কারণে বড় বড় আমদানিকারক বেনাপোল বন্দর ছেড়ে চলে গেছে অন্যত্র। বেনাপোল বন্দর দিয়ে সাধারণত প্রতিদিন ৪৫০ থেকে ৫০০ ট্রাক পণ্য আমদানি হতো ভারত থেকে। বর্তমানে এই সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৫০ থেকে ৩০০ ট্রাকে।

news24bd.tv/ কামরুল