স্ত্রীর পর শ্যালিকা অন্তঃসত্ত্বা, যুবক গ্রেপ্তার
স্ত্রীর পর শ্যালিকা অন্তঃসত্ত্বা, যুবক গ্রেপ্তার

স্ত্রীর পর শ্যালিকা অন্তঃসত্ত্বা, যুবক গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক

স্ত্রীর ৪ মাস পর শ্যালিকা অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার ঘটনায় আলম মিয়া (৩০) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলায় এই ঘটনা ঘটেছে।

গতকাল শুক্রবার বিকেলে চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বিচারক কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এর আগে বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ১১টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আটক  মিয়া উপজেলার ফুলপুর ইউনিয়নের সদর ইউনিয়নের নয়াগাঁও প্রকাশ নগুয়া গ্রামের মৃত আহমাদ আলীর ছেলে। তিনি পেশায় একজন নির্মাণ শ্রমিক।

আরও পড়ুন

চীন রাজ্যে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর তীব্র সহিংসতা

চলে গিয়েও ফিরলেন মির্জা ফখরুল

দ্বিতীয় দিনের ধর্মঘটেও ভোগান্তিতে মানুষ, গুনতে হচ্ছে বাড়তি ভাড়া

মারজুক রাসেল 'গেইল' হয়ে নিয়ে আসছে 'টিম ওয়েস্ট ইন্ডিজ'

পুলিশ ও ভুক্তভোগীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, বড় বোনকে বিয়ের পর থেকেই আলমের নজর পড়ে তার শ্যালিকার ওপর। বিয়ের পর থেকে তাকে বিভিন্ন সময় কুপ্রস্তাব দিতেন আলম। প্রায় ৪ মাস আগে ভুক্তভোগী প্রাইভেট পড়তে কলেজের উদ্দেশে বাড়ি থেকে বের হলে অপহরণ করে আলম। পরে বিষয়টি তার পরিবার জানতে পেরে আলমের পরিবারের সঙ্গে যোগযোগ করলে মেয়েকে ফেরত দেবে বলে জানায়। কিন্তু ৪ মাস পার হয়ে গেলেও মেয়েকে ফেরত দেয়নি। পরে তারা মারফত জানতে পারে শ্যালিকাকেও বিয়ে করেছে আলম এবং তারা দুই বোনই অন্তঃসত্ত্বা। এমতাবস্তায় ফুলপুর থানায় মামলা দায়েরের পর আলমকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

ফুলপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ভুক্তভোগীকে আদালতে হাজির করলে বিচারক তাকে বাবার হেফাজতে পাঠান। এখন দুই বোনই তাদের বাবার কাছে আছে।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত