রেললাইনে সেলফি তুলতে গিয়ে প্রাণ গেলো যুবলীগ নেত্রীর
রেললাইনে সেলফি তুলতে গিয়ে প্রাণ 
গেলো যুবলীগ নেত্রীর

রেললাইনে সেলফি তুলতে গিয়ে প্রাণ গেলো যুবলীগ নেত্রীর

অনলাইন ডেস্ক

রেললাইনে সেলফি তুলতে গিয়ে ট্রেনের ধাক্কায় আহত  যুব মহিলা লীগ নেত্রী রুমানা আক্তার মিতু (৩৫) মারা গেছেন। গতকাল রাতে রাজশাহীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

রুমানা আক্তার মিতু, পাবনা সদর উপজেলার চরতারাপুর ইউনিয়নের মকসেদ আলীর মেয়ে এবং সদর উপজেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক।

এর আগে ২৪ অক্টোবর বিকেলে ভাঙ্গুড়ার দিলপাশার ব্রিজের ওপর থেকে ট্রেনের ধাক্কায় তিনি আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন।

পাবনা জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি আরেফা খানম শেফালী জানান, গতমাসের ২৪ তারিখে ভাঙ্গুড়ার দিলপাশার ব্রিজে বেড়াতে যান তিনি। সে সময় তিনি ট্রেনের লাইনের ওপর দাঁড়িয়ে সেলফি তুলছিলেন। হঠাৎ ট্রেন চলে আসলে দুর্ঘটনার শিকার হন তিনি।

এ সময় রেললাইনের নিচে পড়ে নিঁখোজ হন তিনি। তাকে উদ্ধার করে জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে চিকিৎসক সেখান থেকে স্থানান্তর করার পরামর্শ দিলে তাকে রাজশাহীর একটি বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়।


আরও পড়ুন:

শ্রীমঙ্গলে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুইজন নিহত

অবসর নয়, মজা করছিলেন ক্রিস গেইল!

গুচ্ছ পরীক্ষার ফল চ্যালেঞ্জ জানানো যাবে ২ হাজার টাকায়


রবিবার (৭ নভেম্বর) দুপুর ২টার দিকে পাবনা কামিল আলিয়া মাদরাসা মাঠে জানাজা নামাজ শেষে আরিফপুর সদর গোরস্থানে দাফন করা হবে বলে পরিবার সূত্রে নিশ্চিত করা হয়েছে।

পাবনা সদর থানার ওসি আমিনুল ইসলাম জানান, ট্রেন দুর্ঘটনার ১৩ দিন পরে তিনি মৃত্যুবরণ করেছেন। তার মরদেহ রাজশাহী থেকে নিয়ে এসে পরিবারকে হস্তান্তর করা হয়েছে।

news24bd.tv নাজিম