চলন্ত বাসে ধস্তাধস্তিতে ছিঁড়ে যায় ছাত্রীটির পোশাক
চলন্ত বাসে ধস্তাধস্তিতে ছিঁড়ে যায় ছাত্রীটির পোশাক

চলন্ত বাসে ধস্তাধস্তিতে ছিঁড়ে যায় ছাত্রীটির পোশাক

অনলাইন ডেস্ক

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় জনসেবা নামে বাসচালক খোকনের বিরুদ্ধে চলন্তবাসে কলেজ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় (ঢাকা মেট্রো-জ-১১-১০৪১) জনসেবা বাসসহ মো. খোকন মিয়া (২৮) নামে গাড়িচালককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশের কাছে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে খোকন।

রোববার দুপুরে তাকে মানিকগঞ্জ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

অভিযুক্ত খোকন টাঙ্গাইলের দেলদোয়ারের আটিয়া বেপারীপাড়ার সিরাজুল ইসলামের পুত্র বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় সাটুরিয়া থানায় ধর্ষণ আইনে মামলা দায়ের হয়েছে।  

এদিকে রোববার সকালে ধর্ষক খোকনকে থানা থেকে ছাড়াতে হাজির হন তার দুই স্ত্রী। এরপর এক স্ত্রী অপর স্ত্রীকে দোষারোপ করে খোকনের চরিত্র নিয়ে কথা বলেন। নারী লোভী স্বামী খোকন প্রথম স্ত্রীর অনুমতি না নিয়ে দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন বলে জানা যায়।

শনিবার সকালে গাবতলী থেকে ছেড়ে আসা জনসেবা নামে গণপরিবহণ বাসে উঠেন অনার্স প্রথম বর্ষের ওই শিক্ষার্থী। সেকেন্ড গোলড়া এলাকায় পৌঁছালে ওই গাড়ির সব যাত্রী নেমে যায়। এ সময় হেলপারকে গাড়ি চালাতে দিয়ে ওই তরুণীকে একা পেয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে গাড়িচালক খোকন। ধস্তাধস্তিতে তার পোশাক ছিঁড়ে ফেলে। এ সময় আত্মরক্ষায় গাড়ি থেকে লাফ দিলে শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করেন একজন প্রাইভেটকার চালক। স্থানীয়রা গাড়িসহ চালককে আটক করে গোলড়া হাইওয়ে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন।

আরও পড়ুন: 

কাল থেকে চলবে বাস

বাস ভাড়া বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন

বসুন্ধরার এমডিকে হত্যা চেষ্টার প্রতিবাদে নান্দাইলে মিছিল ও মানববন্ধন

এবার কপাল খুলছে শান্ত-ইমনদের!


 

সাটুরিয়া থানার ওসি মো. আশরাফুল ইসলাম বলেন, অভিযুক্ত বাসচালক খোকন প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণচেষ্টার কথা স্বীকার করেছে। তার বিরুদ্ধে ধর্ষণ আইনে মামলা দেওয়া হয়েছে।

news24bd.tv/ তৌহিদ

সম্পর্কিত খবর