বসুন্ধরা এমডিকে হত্যাচেষ্টা : নাটোরে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ
বসুন্ধরা এমডিকে হত্যাচেষ্টা : নাটোরে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ

বসুন্ধরা এমডিকে হত্যাচেষ্টা : নাটোরে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ

Other

দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র লিমিটেডের চেয়ারম্যান সায়েম সোবহান আনভীরকে একাধিকবার হত্যাচেষ্টার প্রতিবাদে নাটোরে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকালে শহরের কানাইখালীর নাটোর প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত কর্মসূচিতে ব্যবসায়ী, শিক্ষক, সাংবাদিক, কৃষক ও শ্রমিকসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বসুন্ধরা এমডিকে হত্যাচেষ্টায় জড়িত হুইপ সামশুল হক চৌধুরী ও তার ছেলে শারুন চৌধুরীকে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে ঐতিহ্যবাহী নাগরিক সংগঠন আমরা নাটোরবাসী এই কর্মসূচি পালন করে। সংগঠনের আহবায়ক ওয়াকিল আহম্মেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন ইউনাইটেড প্রেস ক্লাবের সভাপতি রেজাউল করিম, গণমাধ্যমকর্মী রাসেদুল ইসলাম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মৌমির সুলতান, আব্দুস সবুর, মিলন হোসেন, ফিরোজ কবির রেন্টু, নাজমুল হক, বিশিষ্ট সমাজসেবক শাহ নেওয়াজ সালাম নয়ন, খন্দকার তানভীর আহম্মেদ, সাব্বির আহম্মেদ চপল ও গণমাধ্যমকর্মী মামুন খাঁনসহ আরও অনেকে।

ইউনাইটেড প্রেসক্লাবের সভাপতি রেজাউল করিম বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপ শুরু থেকেই দেশ ও দেশের মানুষের জন্য কাজ করছে। বসুন্ধরার উন্নয়ন যাত্রা বাধাগ্রস্ত করতে একটি মহল দেশের শীর্ষস্থানীয় এ শিল্প পরিবারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। প্রতিষ্ঠানের এমডি দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি সমাজসেবা ও ক্রীড়া অঙ্গনেও অবদান রাখছেন। তাঁকে হত্যাচেষ্টার মতো নিন্দনীয় কাজে যারা জড়িত ও পরিকল্পনাকারী- তাদের গ্রেপ্তারের দাবি জানাচ্ছি।

ব্যবসায়ী মৌমির সুলতান বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপ দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী। তাদের মাধ্যমে লাখ লাখ মানুষের কর্মসংস্থান ও জীবন-জীবিকা পরিচালিত হচ্ছে। এরকম একটা সফল ও স্বনামধন্য গ্রুপের এমডিকে হত্যাচেষ্টার নির্দেশদাতা হুইপ সামশুল হক চৌধুরী ও তার ছেলে শারুন চৌধুরীকে দ্রুত গ্রেফতার করতে হবে। তারা যতই শক্তিশালী হোক না কেন তাদের বিচার করতে হবে।

ব্যবসায়ী মিলন হোসেন বলেন, বসুন্ধরা এমডিকে হত্যাচেষ্টায় জড়িত আটক সাইফুল সব স্বীকার করেছেন। এর মূল পরিকল্পনাকারী পটিয়ার সংসদ সদস্য হুইপ সামশুল হক চৌধুরী এবং তার ছেলে নাজমুল করিম ওরফে শারুন চৌধুরী। তাদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।  

বিশিষ্ট সমাজসেবক সাব্বির আহম্মেদ বলেন, নাটোরের অনেক শিক্ষিত বেকারকে বসুন্ধরা গ্রুপে চাকরি দিয়েছেন সায়েম সোবহান আনভীর। করোনা চলাকালে নাটোর জেলার সাতটি উপজেলার কর্মহীন বিপুল সংখ্যক মানুষকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন। গণমাধ্যমকর্মীদের চিকিৎসা সহায়তা দিয়েছেন। সেই মানবিক মানুষ বসুন্ধরা গ্রুপের এমডিকে হত্যাচেষ্টার পরিকল্পনাকারীদের আইনের আওতায় আনা না হলে- নাটোর থেকে বৃহত্তর আন্দোলন ঘোষণা করা হবে।

আরও পড়ুন:


অসুস্থ হয়ে পড়লেন যাত্রী, জরুরি অবতরণে ২১ যাত্রীর পলায়ন

নির্মাণাধীন ভবনের নিচে বোমা সদৃশ্য বস্তু রেখে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি

সাক্ষাৎকারে শাকিব খান প্রসঙ্গে যা বললেন অপু বিশ্বাস

আ. লীগ নেতার পকেটে বোমা বিস্ফোরণে উড়ে গেল হাত!


news24bd.tv/ কামরুল