আমাকে গর্ভপাত করতে বাধ্য করে শাকিল : ডা. তৃণা
আমাকে গর্ভপাত করতে বাধ্য করে শাকিল :  ডা. তৃণা

আমাকে গর্ভপাত করতে বাধ্য করে শাকিল : ডা. তৃণা

অনলাইন ডেস্ক

ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় আগাম জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন জানান একাত্তর টিভির বার্তা প্রধান  শাকিল আহমেদ।

আজ সোমবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় আবেদন দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেন অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়।

গত ৪ নভেম্বর তৃণা ইসলাম নামে এক চিকিৎসক বাদী হয়ে গুলশান থানায় মামলাটি দায়ের করেন। ওই মামলায় শাকিল আহমেদের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও ভ্রুণ হত্যার অভিযোগ তোলা হয়।

এ বিষয়ে তৃণা ইসলাম বলেন, আপনারা যারা বিয়ে নিয়ে কথা বলছেন তাহলে আমি বলবো যে মানুষটা অশান্তিতে থাকে তার একটা সুন্দর জীবনের প্রলোভন তো সবচেয়ে বেশি।

তৃণা আরও বলেন, আমি যখন গর্ভবতী হই তখন উচ্চশিক্ষার জন্য লন্ডনে ছিলাম। শাকিল আহমেদকে সেটা জানানোর পর আমাকে দেশে আসতে বলেন। কিন্তু আমি বাধ্য হই গর্ভপাত করতে কারণ আমাকে ভয় দেখানো হয় এটা না করলে বিয়ে তো দূর, কোনও রকম সম্পর্কই তিনি রাখবেন না আমার সাথে।

আরও পড়ুন:

ইতালিতে মাফিয়াদের বড় ধরণের বিচার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে

তেলের দাম না বাড়ানোর আরো উপায় ছিলো

সন্তানদের উপর কতটা নজরদারি করা উচিত?

ডা. তৃণা আরও বলেন এরকম ভয়ভীতি দেখিয়ে আমার সাথে এই কাজটি করেছেন। তিনি বলেন, আমিই বোধহয় প্রথম নারী যে তার বিরুদ্ধে দাঁড়ানোর সাহস করেছি।

আদালতের প্রতি পূর্ণ আস্থা রেখে তৃণা তার সাথে ঘটে যাওয়া ঘটনার বিচার দাবি করেন।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত