কুকুর ভেবে কিনে আনলো শিয়াল, আর যা ঘটলো

কুকুর ভেবে কিনে আনলো শিয়াল, আর যা ঘটলো

Other

শখ করে দোকান থেকে কিনে আনা হয়েছিল ছোট্ট কুকুরছানা। কিন্তু কিছুদিনের মধ্যেই প্রতিবেশীদের একের পর এক ক্ষতির ঘটনায় খোঁজ নিয়ে দেখা গেল, প্রাণীটি আসলে একটি শিয়াল। আর এমনই এক ঘটনা ঘটেছে পেরুর রাজধানী লিমায়।

রাজধানীর একটি পোষা প্রাণীর দোকান থেকে যখন মারিবেল সোটেলো কুকুরছানাটি এনেছিলেন, ঘুনাক্ষরেও টের পেয়েছিলেননা যে স্বেচ্ছায় মুরগির খামারে শেয়াল ঢুকাচ্ছেন তিনি।

ছোটবেলায় এলাকার অন্য কুকুরের সাথে আনন্দের সাথেই খেলা করতো “রান রান” নামের পোষা প্রাণীটি। কিন্তু ধীরে ধীরে যখন সে বড় হয়ে উঠলো, তখনই শুরু করলো প্রতিবেশীদের পোষা প্রাণীদের উপর আক্রমণ।

"কেনার সময় সে দেখতে অনেকটা নেকড়ের মতো ছিল। তাই আমরা প্রথমে ওকে হাইব্রিড ভেবেছিলাম। প্রায় সাড়ে ১২ ডলার দিয়ে ওকে কিনেছিলাম। এক মাস আগে এক নারী এসে জানালেন, আমার কুকুরটি তার তিনটি গিনিপিগ খেয়ে ফেলেছে। আর মাত্র দু-তিনদিন আগেই এক স্থানীয় বৃদ্ধা জানালেন, তার গিনিপিগকে মেরে ফেলেছে সে। "

কয়েকদিন আগেই নিজের মালিকের বাড়ি থেকে পালিয়ে যায় রান রান। তাকে বিশেষ চিড়িয়াখানায় নেয়ার জন্য খোঁজ চালাচ্ছে পরিবেশগত পুলিশ এবং রাজ্য জাতীয় বন ও বন্যপ্রাণী পরিষেবার কর্মকর্তারা।

"লিমা বিভাগে আমরা বন্যপ্রাণী সংক্রান্ত ১২৮ টি অপারেশন চালিয়েছে। যা দেখতে পেলাম, এখানকার মানুষের কাছে বন্যপশুদের অনেক তথ্য অজানা। বন্যপ্রাণীদের আচরণ সম্পর্কেও অনেক কিছু অজানা তাদের। "

 আরও পড়ুন:

তারেক বিলাসী জীবনের টাকা কোথায় পায়, প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর

ধর্ষণ মামলায় জামিন পেলেন একাত্তর টিভির শাকিল আহমেদ

নির্ধারণ হলো লঞ্চের সর্বনিম্ন ভাড়া


 

সাধারণত দক্ষিণ কলম্বিয়া, ইকুয়েডর, চিলি, বলিভিয়া এবং আর্জেন্টিনা বসবাস করে রান রানের মতো অ্যান্ডিয়ান শিয়ালগুলো।

news24bd.tv/আলী