বিদ্যুতায়িত জিআই তারে জড়িয়ে বন্যহাতির প্রাণ গেল
বিদ্যুতায়িত জিআই তারে জড়িয়ে বন্যহাতির প্রাণ গেল

বিদ্যুতায়িত জিআই তারে জড়িয়ে বন্যহাতির প্রাণ গেল

Other

শেরপুরের গারো পাহাড়ে বিদ্যুতায়িত জিআই তারে জড়িয়ে একটি বন্যহাতি মারা গেছে। ৯ নভেম্বর মঙ্গলবার ভোরে শ্রীবরদী উপজেলার বালিজুড়ি রেঞ্জের মালাকোচা নেওয়াবাড়ি টিলার কাছে আমির উদ্দিনের সবজির বাগানে বিদ্যুতায়িত জিআই তারের বেড়ার সাথে জড়িয়ে হাতিটি মারা যায়।

স্থানীয় ও বনবিভাগ সূত্রে জানা গেছে, শেরপুরের গারো পাহাড়ের বন্যহাতির বিচরণ এলাকায় স্থানীয় লোকজন বনবিভাগের জবর দখলকৃত জমিতে বাড়ি-ঘর নির্মাণ এবং ধান ও সবজীর বাগান করে আসছে।

এসব স্থানে বনবিভাগের নির্দেশনাকে উপেক্ষা করে সবজী, ধান ক্ষেত ও বাড়ির চারপাশে বিদ্যুতায়িত জিআই তারের বেড়া দিয়েছে।

এসব জিআই তারে জড়িয়ে প্রায়ই হাতির মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে।

বনবিভাগের পক্ষ থেকে বিদ্যুতায়িত জিআই তারের বেড়া তুলে নেওয়ার জন্য বারবার নিষেধ করার পরও তারা তা মানছে না।

আরও পড়ুন


স্বল্প খরচে ৪০ হাজার কর্মী নেবে রোমানিয়া

সেদিন আমার কাছে আসলে ২ বাচ্চার মার কাছে ধরা খেতে হতো না: সুবাহ

কিশোরীকে বিয়ে করতে ব্যর্থ জোরপূর্বক ধর্ষণ

গোসলের ভিডিও ধারণ, ব্ল্যাকমেইল করে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ


মঙ্গলবার ভোররাতের দিকে মালাকোচা নেওয়াবাড়ির টিলার কাছে আমির উদ্দিনের সবজীর বাগানে দেওয়া জিআই তারে বেড়ার বৈদ্যুতিক ফাঁদে জড়িয়ে হাতিটি মারা যায়।

শ্রীবরদী উপজেলার বালিজুড়ি রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. রবিউল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে মৃত হাতিটির সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি ও ময়নাতদন্তের জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। মৃত ওই পুরুষ হাতিটির বয়স ২৫/৩০ হতে পারে।

প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্টে ধারণা করা হচ্ছে, হাতিটি বিদ্যুতায়িত হয়েই মারা গেছে। তবে ময়নাতদন্তের পর সঠিক কারণ জানা যাবে। এ ঘটনায় শ্রীবরদী থানায় একটি মামলা দায়ের করা হবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিলুফা আক্তার বলেন, ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেলে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, গত এক যুগে শেরপুরের সীমান্তবর্তী গারো পাহাড়ের নালিতাবাড়ী, ঝিনাইগাতী ও শ্রীবরদী উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অন্তত ১৫টি হাতি মারা পড়েছে। পাশাপাশি হাতির আক্রমণেও মানুষ মারা যাচ্ছে। ফসলের ক্ষেত ও ঘর-বাড়ির ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কোটি কোটি টাকার। ওই অবস্থায় সরকার হাতি-মানুষ সহাবস্থানের জন্য নানা প্রকল্প গ্রহণ করলেও কোনটিই কাজে আসেনি।

news24bd.tv/ তৌহিদ

সম্পর্কিত খবর

;