ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন: দ্বিতীয় ধাপে বেড়েছে সহিংসতা
ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন: দ্বিতীয় ধাপে বেড়েছে সহিংসতা

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন: দ্বিতীয় ধাপে বেড়েছে সহিংসতা

অনলাইন ডেস্ক

দ্বিতীয় ধাপে ৮৪৭টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ আগামী ১১ নভেম্বর। আজ প্রচারণার শেষ দিন। ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থীরা।  

তবে, প্রথম ধাপের ইউপি নির্বাচনে সহিংসতার চেয়ে দ্বিতীয় ধাপে নির্বাচনী সহিংসতা বেড়েছে অনেক বেশি।

নির্বাচনী পূর্ব সহিংসতায়ই এ পর্যন্ত নিহত হয়েছে কমপক্ষে ২০জন। আহত হয়েছেন শতাধিক।  

নির্বাচন সংশ্লিষ্টরা বলছেন, নির্বাচনের পরিবেশ প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণেই আছে, যে করেই হোক সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে পিরোজপুরের নয়টি ইউনিয়নে জমে উঠেছে শেষ মুহূর্তের ভোটের লড়াই।   

তবে, প্রথম ধাপের চেয়ে দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে বেড়েছে সহিংসতা। রোববার সন্ধ্যায় শংকরপাশা ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের মনোনীত প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারণাকালে প্রতিপক্ষের বিদ্রোহী প্রার্থী ও সমর্থকদের হামলায় গুলিবিদ্ধ হন পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল মাহাবুব শুভ।  

এছাড়াও আরো এককর্মী মেহেদী হাসানও গুরুতর আহত হয়। এ সব ঘটনায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে শংকরপাশা, দুর্গাপুর,পাড়েরহাটসহ কয়েকটি ইউনিয়নের মানুষের মাঝে। আর সহিংসতার ঘটনায় একে অন্যকে দুষছেন প্রার্থীরা।  

যশোরের চৌগাছা ও ঝিকরগাছ  ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী নিয়ে বিপকে পড়েছে আওয়ামী লীগ। প্রায় প্রতিটি ইউনিয়নে রয়েছে এক বা একাধীক প্রার্থী। দুই উপজেলায়ই নৌকা ও বিদ্রহী প্রার্থীদের সাথে  ঘটছে সহিংসতার ঘটনা, বাড়ছে আহতের সংখ্যা।

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার ১৪ টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। শেষ মুহুর্তের প্রচারণায় মুখর বিভিন্ন গ্রামগঞ্জের এলাকা। তবে এখানেও রয়েছে একাধিক বিদ্রোহী স্বতন্ত্রপ্রার্থীর ছড়াছড়ি। ফলে অভিযোগ পাল্টা অভিযোগে ভারি নালিশের তালিকাও। নেই আচরণবিধির বালাই।


আরও পড়ুন:

ভাড়া নিয়ে রাজপথে নৈরাজ্য

দেশে করোনার ট্যাবলেটের অনুমোদন

নিজের বিয়ে ঠেকাতে গলায় ফাঁস দিলো কিশোরী


নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বলে দাবি জেলার পুলিশ সুপারের আর সুষ্ঠু নির্বাচনের সকল ব্যবস্থা নেওযার কথা বলছে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা।

এদিকে এই নির্বাচনকে ঘিরে সহিংসতা বাড়ছেই। সব শেষ মেহেরপুরের গাঙনিতে দুই মেম্বার প্রর্থীদের সংঘর্ষে মারা গেছে দুই ভাই। এ নিয়ে দ্বিতীয় দফা ভোটে মোট মারা গেছে ২০ জনের মত।  

news24bd.tv নাজিম

;