সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ৩৪ মিনিট আগে

পুশকিনের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা 

বারেক কায়সার, মস্কো (রাশিয়া) থেকে

পুশকিনের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা 

রুশ সাহিত্যের জনক আলেকজেন্ডার পুশকিনের ২১৯তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও আবৃত্তি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। যৌথ উদ্যোগে এই কর্মসূচির আয়োজন করে বাংলাদেশস্থ রুশ ফেডারেশন দূতাবাসের সাংস্কৃতিক বিভাগ ও বাংলা প্রেসক্লাব রাশিয়া।

রুশ বিজ্ঞান ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের এই অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সে অংশগ্রহণ করে রাশিয়ায় অধ্যয়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা। দিনটিকে ‘রুশ ভাষা দিবস’ হিসেবে পালন করা হয়। 

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, পুশকিনকে অভিহিত করা হয় আধুনিক রুশ সাহিত্যের জনক হিসেবে। তাকে বলা হয় ‘রুশ কবিতার সূর্য’। মাত্র ৩৮ বছরের জীবনকালে তিনি খ্যাতির চূড়ায় আরোহণ করেন। ভাষার ওপর এই লেখকের অবিশ্বাস্য দখল ও দক্ষতা ছিল। 

অগ্রজ সাহিত্যিকদের প্রতিষ্ঠিত ভাষারীতির অনুসরণ না করে স্বকীয় ভাষারীতির নির্মাণ করেন পুশকিন। যার বৈশিষ্ট্য ছিলো গতিময়তা ও আধুনিকতা। ফলে ভাষা প্রাঞ্জলতা ও গভীরতা লাভ করে। 

পুশকিন মূলত কবি হলেও উপন্যাস রচনায় হাত দিয়েও তিনি সার্থক। তার রচিত উপন্যাস ‘ইয়েভেজোন ওনেজিন’- রুশ কথা সাহিত্যের মাইলস্টোন হিসেবে খ্যাত। 

রুশ বিজ্ঞান ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের পরিচালক আলেকজান্ডার পেত্রোভিচ দিওমিন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। উপস্থিত ছিলেন পরিচালকের সহধর্মিণী নাতালিয়া দিওমিনা, রুশ বিজ্ঞান ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের কালচারাল প্রোগ্রাম সেকশনের হেড প্রশান্ত কুমার বর্মন, এডুকেশন সেকশনের ইনচার্জ সৈয়দ বজলুল হাসান রাজীব, রাশিয়ান ভাষা কোর্সের শিক্ষক ইয়াসমিন সুলতানা প্রমুখ। 

আলোচনায় অংশ নেন বাংলা প্রেসক্লাব রাশিয়ার সভাপতি বারেক কায়সার। কবিতা আবৃত্তি করেন- ফয়সাল আলম, মাজহারুল ইসলাম সানি ও সৈয়দ মেহেদী হাসান। 

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন রাশিয়ার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চশিক্ষায় অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী জিয়া উদ্দীন, আশ্রাফ উদ্দিন, খন্দকার শাহ্ শাহরিয়ার, সৌমিত্র বসাক নিলয়, জান্নাতুল তাজরীন স্নিগ্ধা, রেজাউল করিম শান্ত, মো. মতিউর রহমান, তাবাসসুম কিশওয়ার রাফা, ফারিয়া ইসলাম ও মো. জাহিদ হাসান।

বারেক/অরিন/নিউজ টোয়েন্টিফোর

মন্তব্য