বাবার মরদেহ বাড়িতে রেখে পরীক্ষা দিলো মেয়ে
বাবার মরদেহ বাড়িতে রেখে পরীক্ষা দিলো মেয়ে

বাবার মরদেহ বাড়িতে রেখে পরীক্ষা দিলো মেয়ে

অনলাইন ডেস্ক

নরসিংদীর পলাশ উপজেলার ঘোড়াশাল পৌরসভার কুটিরপাড়া এলাকার বাসিন্দা সিনথিয়া। বাবার মরদেহ বাড়িতে রেখে এসএসসি পরীক্ষায় তার অংশ নেওয়ার ঘটনাটি পুরো এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। সে ঘোড়াশাল পৌর এলাকার জনতা আদর্শ বিদ্যাপীঠের ছাত্রী। প্রথমদিনে পদার্থ বিজ্ঞান পরীক্ষা ছিল তার।

আজ ভোরে সিনথিয়ার বাবা হুমায়ুন কবির (৪৯) মারা যান। বাবাকে হারিয়ে অনেকটা নির্বাক হয়েও সহপাঠী ও কেন্দ্র সচিবের সহযোগিতায় ঘোড়াশাল ডা. নজরুল বিন নূর মহসিন বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজে সিনথিয়া আজ এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়। এক হাতে চোখ মুছে ও অন্য হাতে খাতায় লিখতে দেখা গেছে তাকে।  

সিনথিয়ার স্বজনরা জানান, হুমায়ুন হার্ট অ্যাটাক করে ভোরে নিজ বাড়িতে মারা যান।

মৃত্যুর পর বাবাহারা সিনথিয়া এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে।


আরও পড়ুন:

বিএনপি দেউলিয়া হয়ে সর্বহারাতে রূপ নিতে যাচ্ছে: কাদের

কাজাখস্তানের জালে ফ্রান্সের গোল উৎসব

সিলেটের সেই লেডিবাইকারকে খুঁজছে পুলিশ


ডা. নজরুল বিন নূর মহসিন বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষ ও পরীক্ষা কেন্দ্রের কেন্দ্র সচিব রিনা নাসরিন জানান, পরীক্ষার্থী সিনথিয়ার বাবার মৃত্যুর বিষয়টি আমরা জানি। তার জন্য কোনো বিশেষ ব্যবস্থায় পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে না।  

তিনি বলেন, আমরা মনে করেছি, বিশেষ কোনো ব্যবস্থা ছাড়া সবার সঙ্গে পরীক্ষা দিলে তার জন্য ভালো হবে। আমরা তাকে উৎসাহ দিয়েছি পরীক্ষা দিতে এবং তার দিকে সার্বক্ষণিক নজর রাখা হয়েছে।

news24bd.tv নাজিম