শরণার্থী সংকটের দায় অস্বীকার করলেন পুতিন
শরণার্থী সংকটের দায় অস্বীকার করলেন পুতিন

শরণার্থী সংকটের দায় অস্বীকার করলেন পুতিন

অনলাইন ডেস্ক

পোল্যান্ড ও বেলারুশ সীমান্তে শরণার্থী সংকটের দায় অস্বীকার করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। অথচ এই সংকট নিয়ে চলছে বেলারুশ এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের কাদা ছুড়াছুড়ি। এদিকে, তীব্র শীত উপেক্ষা করে সীমান্তে জড়ো হওয়া হাজারো অভিবাসনপ্রত্যাশী দুর্ভোগ চরমে উঠেছে। দ্রুত সহায়তার আহ্বান জানিয়েছে আর্ন্তজাতিক মানবাধিকার সংস্থাগুলো।

বেলারুশ-পোল্যান্ড সীমান্তে অভিবাসন সংকট ক্রমেই আরো তীব্র আকার ধারণ করেছে। প্রচণ্ড ঠান্ডা আবহাওয়ায় হাজার হাজার শরণার্থী পোল্যান্ড ও বেলারুশ সীমান্তে চরম দুর্ভেগের মুখে পড়েছে। এমতাবস্থায় মানবিক সংস্থা ও স্থানীয় বাসিন্দারা যত দ্রুত সম্ভব এই সংকট সমাধানের আহ্বান জানিয়েছে।  

শীত নিবারনের পোশাক, খাবার ও বিশুদ্ধ পানির চরম সংকট তৈরি হয়েছে। খাবার ও পোশাকের অভাবে তারা নিদারুণ কষ্টে দিন কাটাচ্ছে। চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন অনেক প্রবীণ, নারী ও শিশু।

আরও পড়ুন:

গুপ্তচর সন্দেহে এক পরিবারের ৪ জনকে খুন!

বিয়ে করতে অস্বীকার করে মেসেজ ; ছাত্রীর আত্মহত্যা

রিজওয়ানের 'বালিশ প্রেমের' নেপথ্যের গল্প!

তবুও টনক নড়ছে না আর্ন্তজাতিক সম্প্রদায়ের। বরং এসব ঘটনার জন্য বেলারুশকেই দায়ী করছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। তারা বলছে, রাশিয়ার ইন্ধনে তারা মানুষকে পোল্যান্ডে প্রবেশের উসকানি দিচ্ছে।   যাদের অনেকে মধ্যপ্রাচ্যের নাগরিক।

তবে এমন অভিযোগ নাকচ করেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লামিমির পুতিন। দাবি করেন, পোল্যান্ড ও বেলারুশ সীমান্তে চলমান শরণার্থী সংকটের সঙ্গে কোনভাবেই জড়িত নয় রাশিয়া । বলেন, এমন অভিযোগ মস্কোকে দোষারোপের আপচেষ্টা মাত্র।  

গত আগস্ট মাস থেকে জার্মানিসহ পশ্চিম ইউরোপের দেশগুলোতে যুকার চেষ্টায় মধ্যপ্রাচ্য শরণার্থীরা বেলারুশ অতিক্রম করে  পোল্যান্ড ও লিথুয়ানিয়ায় প্রবেশ করছে। ফলে দেশ দুটির সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা বড় চাপের মুখে পড়ে।

 news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

;