সোনাইমুড়ীতে হেযবুত তওহীদের ‘মিট দ্যা প্রেস’
সোনাইমুড়ীতে হেযবুত তওহীদের ‘মিট দ্যা প্রেস’

সোনাইমুড়ীতে হেযবুত তওহীদের ‘মিট দ্যা প্রেস’

Other

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার পোরকরা গ্রামে হেযবুত তওহীদের ‘মিট দ্যা প্রেস’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার  দুপুরে হেযবুত তওহীদের এমাম হোসাইন মোহাম্মদ সেলিমের বাসভবনের কনফারেন্স হলে ‘অপপ্রচার ও গুজব সৃষ্টি করে ধর্মীয় অনুভূতিকে ব্যবহার করে হত্যাকাণ্ড, জ্বালাও-পোড়াও ও লুটপাটের বিরুদ্ধে গণমাধ্যমকে অবহিতকরণ’ বিষয়ে অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।  

হেযবুত তওহীদের এমাম বলেন, ২০০৯ সালে হেযবুত তওহীদের অনুসারীদের বাড়িতে বাড়িতে হামলা, ভাংচুর, লুটপাট ও মারধর করে আহত করা এবং ২০১৬ সালের ১৪ মার্চ নির্মাণাধীন মসজিদকে গীর্জা বলে গুজব রটিয়ে যারা হামলা চালিয়েছিল এবং দুইজন হেযবুত তওহীদের সদস্যকে প্রকাশ্যে গলাকেটে হত্যা করেছিল, সেই রোমহর্ষক ঘটনার বর্ণনা ও তথ্যচিত্র তুলে ধরেন তিনি। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের মাধ্যমে প্রশাসনের নিকট ন্যায় বিচার দাবি করেন।

 

আরও পড়ুন: 


অটোরিকশা থেকে ভাইকে নামিয়ে বোনকে ধর্ষণ

পদ্মা সেতু প্রকল্পে চাকরির কথা বলে বন্ধুকে হত্যা, গ্রেপ্তার ১

পাকিস্তানের পতাকা লাগিয়ে কীসের প্র্যাকটিস: তথ্য প্রতিমন্ত্রী


তিনি বলেন, একটি স্বার্থান্বেষী গোষ্ঠী মানুষের ধর্মীয় অনুভূতিকে আঘাত করে এই ধ্বংসাত্মক ঘটনা ঘটিয়েছে এবং এই কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, আমার জীবন আজ হুমকির মুখে। ফেসবুকে বিভিন্ন ওয়াজে হত্যার হুমকি, শত শত ভাইবোন আজ হুমুকর মুখে। হেযবুত তওহীদের নামে এমনকি আমার নামেও বিভিন্ন অপপ্রচার ও উস্কানীমূলক বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে। সেই সাথে ধর্মীয় উন্মাদনা সৃষ্টি করে আমাকে ও হেযবুত তওহীদের লোকজনদের বিভিন্ন হুমকি ধমকি দেয়া হয়েছে।  

‘মিট দ্যা প্রেস’ অনুষ্ঠানে হেযবুত তওহীদের চট্টগ্রাম বিভাগীয় আমির মো. নিজাম উদ্দিন, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম, ফেনী, কুমিল্লা, চাঁদপুর ও লক্ষ্মীপুর জেলায় গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।  

news24bd.tv/ কামরুল