সেইসময়ে ইতালিতে ঢাকাই মসলিন রাজকীয় পোশাক হিসেবে ব্যবহার হতো
সেইসময়ে ইতালিতে ঢাকাই মসলিন রাজকীয় পোশাক হিসেবে ব্যবহার হতো

সেইসময়ে ইতালিতে ঢাকাই মসলিন রাজকীয় পোশাক হিসেবে ব্যবহার হতো

Other

ইতালির রেনেসাঁ পেইন্টার বত্তিচেল্লির সবচেয়ে বিখ্যাত পেইন্টিং হচ্ছে বার্থ অব ভেনাস। আমরা জানি পেইন্টারেরা পেইন্টিং এর সময়ে মডেল ব্যবহার করেন। শিল্পী হিসাবে উনার আঁকার সাবজেক্টও ছিলো ভেনাস।  

বত্তিচেল্লি বার্থ অব ভেনাস আকার সময়ে মডেল হিসেবে ব্যবহার করেছিলেন যেই মহিলাকে তার নাম ছিল সিমনেত্তা ভেস্পুচ্চি।

বত্তিচেল্লি সিমনেত্তা ভেস্পুচ্চিকে নিয়ে অনেকগুলো পেইন্টিং ই করেছিলেন। আর সিমনেত্তার নিজের একটা পোট্রেইট এঁকেছিলেন।  

সেই,সময়ে, ইতালি, ঢাকা, মসলিন, রাজকীয়, পোশাক, হিসেবে, ব্যবহার, হতো
সিমনেত্তা দেখতে ঠিক কেমন ছিল সেটা জানার জন্য বিজ্ঞানীরা আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স ব্যবহার করে ডানের ছবিটি তৈরি করেছেন বা'য়ের ছবিটা বার্থ অব ভেনাস পেইন্টিং এর ভেনাসের মুখশ্রী। সিমনেত্তা দেখতে অপূর্ব সুন্দরী ছিলেন এতে কোন সন্দেহ নেই।   বত্তিচেল্লি মানে কিন্তু ছোট পিপে।  

তার পুরো নাম আলেসান্দ্রো ডি মারিয়ানো ডি ভান্নি ফিলিপেপি। ছন্নছাড়া প্রকৃত শিল্পীর মতোই জীবদ্দশায় বত্তিচেল্লি যেমন অভিজাত সমাজের সান্নিধ্য লাভ করে বিত্তশালী হয়েছিলেন, তেমনি মৃত্যুর সময় ছিলেন কপর্দকশূন্য! আর তিনি ছিলেন লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির চাইতে সাত বছরের বড়ো।  

বত্তিচেল্লি সম্পর্কে আরেকটি বিষয় আমরা জানিনা। তিনি ঢাকাই মসলিন এঁকেছিলেন বেশ কয়েকটা পেইন্টিং এ। সেইসময়ে ইতালিতে ঢাকাই মসলিন অভিজাত আর রাজকীয় পোশাক হিসেবে ব্যবহার করা হতো।

লেখাটি শান্তা আনোয়ার-এর ফেসবুক থেকে সংগৃহীত ( লেখাটির আইনগত ও অন্যান্য দায় লেখকের নিজস্ব। এই বিভাগের কোনো লেখা সম্পাদকীয় নীতির প্রতিফলন নয়। )

news24bd.tv/আলী