বহিষ্কৃত মেয়র জাহাঙ্গীরের রাজনৈতিক উত্থান যেভাবে শুরু

অনলাইন ডেস্ক

বহিষ্কৃত মেয়র জাহাঙ্গীরের রাজনৈতিক উত্থান যেভাবে শুরু

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের গতকাল শুক্রবার প্রাথমিক সদস্যপদ বাতিলের পাশাপাশি তাকে আওয়ামী লীগ থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি করার দায়ে সাংগঠনিকভাবে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন সদ্য বহিষ্কৃত গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম। 

জানা গেছে, মাত্র ৩৯ বছর বয়সে গাজীপুর সিটি মেয়র হন জাহাঙ্গীর আলম। কিন্তু কীভাবে উঠে এসেছিলেন তিনি?

১৯৭৯ সালে ৭ মে গাজীপুরে জন্মগ্রহণ করেন জাহাঙ্গীর আলম। তিনি চান্দনা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসিতে উত্তীর্ণ হয়ে ভাওয়াল বদরে আলম সরকারী কলেজ থেকে স্নাতক ও মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন। পরে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি ডিগ্রি অর্জন করেন। রাজনৈতিক জীবনের শুরুতে তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ গাজীপুর জেলা শাখার সহ-সভাপতি, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সহ-সম্পাদক ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সহ-সভাপতি ছিলেন। তিনি গাজীপুর সদর ও টঙ্গী উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ছিলেন।

রাজনীতির বাইরে জাহাঙ্গীর আলম হলেন একজন ব্যবসায়ী। তিনি গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র। আওয়ামী লীগের সঙ্গে যুক্ত হয়ে ২০১৮ সালের জুলাইয়ে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র হিসেবে দ্বিতীয়বারের মতো নির্বাচিত হন তিনি। সদ্য বহিষ্কৃত জাহাঙ্গীর আলম অনারেবল টেক্সটাইল এন্ড কম্পোজিট লিমিটেড এবং জেড আলম অ্যাপারালসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

গাজীপুরকে 'দ্বিতীয় গোপালগঞ্জ' বলা হয়। প্রয়াত ময়েজউদ্দীন, রহমত আলী, আহসান উল্লাহ মাস্টার এবং এখনকার মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, আজমত উল্লা খান, আখতারুজ্জামান—সবাই এ জেলার আওয়ামী লীগের ভোট ব্যাংক পাহারা দিয়েছেন। প্রবীণ এই নেতাদের মধ্যে ডাক সাইটে উঠে আসেন জাহাঙ্গীর আলম। তিনি নিজের নিজস্ব বলয় গড়েন। ঝুটের ব্যবসা করে বিপুল অর্থের মালিক বনে যান জাহাঙ্গীর। তিনি নিজের নামে একটি ফাউন্ডেশন করে সমান্তরাল একটি শক্তি সৃষ্টি করেন। এরপর ক্রমশ গাজীপুরে আওয়ামী লীগের রাজনীতির কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসেন।

উল্লেখ্য, জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে মহান মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগ ওঠে। গত ২২ সেপ্টেম্বর ফেসবুকে গাজীপুরের মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। চার মিনিটের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, মহান মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজমত উল্লাহ খান, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেলকে কটূক্তি করেন। এমনকি রাষ্ট্রীয় দুটি সংস্থা নিয়েও নানা আপত্তিকর মন্তব্য করেন তিনি। জাহাঙ্গীর মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে সংশয় প্রকাশের পাশাপাশি বঙ্গবন্ধুর দেশ স্বাধীন করার উদ্দেশ্য নিয়েও প্রশ্ন তোলেন।

আরও পড়ুন:


১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সী বিদেশিরা ওমরাহ পালনে করতে পারবেন


এ ঘটনায় গাজীপুরে মেয়রের শাস্তির দাবিতে মশাল মিছিল বের হয়। রাজনীতির অঙ্গনে জাহাঙ্গীরের বক্তব্য নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়। গাজীপুরের পরিস্থিতি শান্ত করতে আওয়ামী লীগ উদ্যোগ নেয়।

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

তল্লাশি শেষ, বিমানবন্দরের স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু

অনলাইন ডেস্ক

তল্লাশি শেষ, বিমানবন্দরের স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু

বোমা আতঙ্কে  ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট জরুরি অবতরণ করে। ফ্লাইটটি বুধবার রাত ৯টা ৩৮ মিনিটে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর থেকে ঢাকায় নামে। মালয়েশিয়ান বিমানটিতে তল্লাশী করে কোনো বোমা পাওয়া যায়নি। ফ্লাইটটিকে আনুষ্ঠানিকভাবে নিরাপদ ঘোষণা করেছে বিমান বাহিনীর বোমা ডিস্পোজাল ইউনিট।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে এটিকে নিরাপদ ঘোষণা করা হয়। এতে বিমানবন্দরের স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

রাত পৌনে ১২টায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এম তৌহিদ উল আহসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

ক্যাপ্টেন এম তৌহিদ উল আহসান জানান, বোমা থাকার খবরে মালয়েশিয়ান এয়ারলাইনসের একটি উড়োজাহাজ অবতরণের পর সেটিকে নিরাপদ স্থানে নিয়ে তল্লাশি চালানো হয়। বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর বোমা নিষ্ক্রিয়করণ দল এই তল্লাশি অভিযান চালায়। তবে এতে কোনো কিছু পাওয়া যায়নি। 

এর আগে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বোমা আতঙ্কের কারণে সতর্কতা জারি করা হয়।

সেসময় বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বি এম ফরমান আলী গণমাধ্যমকে বলেন, বিমানবন্দরে একটি ম্যাসেজ আসে যে, ফ্লাইটটিতে বোমা থাকতে পারে।

এরপর নিরাপত্তাকর্মীরা ফ্লাইটটিতে তল্লাশি চালান।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

বোমা আতঙ্ক : মালয়েশিয়ান উড়োজাহাজে কোনো কিছু পাওয়া যায়নি

অনলাইন ডেস্ক

বোমা আতঙ্ক : মালয়েশিয়ান উড়োজাহাজে কোনো কিছু পাওয়া যায়নি

ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট জরুরি অবতরণ করে। ফ্লাইটটি বুধবার রাত ৯টা ৩৮ মিনিটে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর থেকে ঢাকায় নামে।

ওই বিমানে বোমা থাকার খবরে উড়োজাহাজে তল্লাশির পর সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ওই উড়োজাহাজে এখনো পর্যন্ত সন্দেহজনক কোনো কিছু পাওয়া যায়নি। রাত পৌনে ১২টায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এম তৌহিদ উল আহসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

ক্যাপ্টেন এম তৌহিদ উল আহসান জানান, বোমা থাকার খবরে মালয়েশিয়ান এয়ারলাইনসের একটি উড়োজাহাজ অবতরণের পর সেটিকে নিরাপদ স্থানে নিয়ে তল্লাশি চালানো হয়। বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর বোমা নিষ্ক্রিয়করণ দল এই তল্লাশি অভিযান চালায়। তবে এতে কোনো কিছু পাওয়া যায়নি। 

এর আগে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বোমা আতঙ্কের কারণে সতর্কতা জারি করা হয়।

এর আগে বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বি এম ফরমান আলী গণমাধ্যমকে বলেন, বিমানবন্দরে একটি ম্যাসেজ আসে যে ফ্লাইটটিতে বোমা থাকতে পারে। নিরাপত্তাকর্মীরা ফ্লাইটটিতে তল্লাশি চালাচ্ছে।

তবে মালয়েশিয়া থেকে আসা ফ্লাইটটিতে কতজন যাত্রী রয়েছেন, সে ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ভারত থেকে আসলো আরও ৪৫ লাখ টিকা

অনলাইন ডেস্ক

ভারত থেকে আসলো আরও ৪৫ লাখ টিকা

ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকার আরও ৪৫ লাখ ডোজ কোভিশিল্ড টিকা দেশে পৌঁছেছে।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) রাত ৮টা ১০ মিনিটে এয়ার ইন্ডিয়ার একটি ফ্লাইটে টিকাগুলো হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায়।

বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের চিফ অপারেটিং অফিসার (সিওও) রাব্বুর রেজা  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন:

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনায়েত উল্লাহ

কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যা: ৬ হামলাকারী শনাক্ত


 

তিনি বলেন, সেরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী আজ রাতে আরও ৪ দশমিক ৫ মিলিয়ন (৪৫ লাখ) ডোজ টিকা দেশে পৌঁছেছে। এই ডোজগুলো বাংলাদেশ সরকার ও সেরামের সঙ্গে চুক্তির ক্রয় করা টিকা।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ঢাকায় বোমা আতঙ্কে ফ্লাইটের জরুরি অবতরণ, চলছে তল্লাশি

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকায় বোমা আতঙ্কে ফ্লাইটের জরুরি অবতরণ, চলছে তল্লাশি

ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট জরুরি অবতরণ করেছে। ফ্লাইটটি বুধবার রাত ৯টা ৩৮ মিনিটে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর থেকে ঢাকায় নামে।

বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বি এম ফরমান আলী গণমাধ্যমকে বলেন, বিমানবন্দরে একটি ম্যাসেজ আসে যে ফ্লাইটটিতে বোমা থাকতে পারে। নিরাপত্তাকর্মীরা ফ্লাইটটিতে তল্লাশি চালাচ্ছে।

এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জিয়াউল হক বলেন, আমরা কাজ করছি। পরে বিস্তারিত জানাব।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ল্যান্ডিং গিয়ারে সমস্যা : চট্টগ্রামে বিমানের জরুরি অবতরণ

অনলাইন ডেস্ক

ল্যান্ডিং গিয়ারে সমস্যা : চট্টগ্রামে বিমানের জরুরি অবতরণ

ফাইল ছবি

বিমানের গিয়ার কাজ না করায় পাইলটের দক্ষতায় বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইট চট্টগ্রামের শাহ আমানত বিমান বন্দরে জরুরি অবতরণ করতে সক্ষম হয়েছে।আজ বুধবার রাত সাড়ে ৯টার পর বিমানটি অবতরণ করে।

ল্যান্ডিং গিয়ারে সমস্যার কারণে ৫০ মিনিট বিলম্বে জরুরি অবতরণ করে বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইটটি। আজ বুধবার রাত সাড়ে ৯টার পর বিমানটি অবতরণ করে।

শাহ আমানত বিমানবন্দরের পরিচালক উইং কমান্ডার ফরহাদ হোসেন খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন:

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনায়েত উল্লাহ

কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যা: ৬ হামলাকারী শনাক্ত


বিমানবন্দর সূত্র জানিয়েছে, সন্ধ্যায় ঢাকা থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি ৬১৭ ফ্লাইটটি চট্টগ্রামের উদ্দেশে রওনা হয়। চট্টগ্রামে অবতরণের আগে ল্যান্ডিং গিয়ারটি কাজ না করায় ফ্লাইটটি আকাশে বারবার চক্কর দিতে থাকে। ফ্লাইটটি পরিচালনা করছিলেন বিমানের ক্যাপ্টেন রুবায়েত। এতে ৪২ জন যাত্রী ছিলেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর