'হাসান আজিজুল হকের নোবেল না পাওয়া কর্তৃপক্ষের জন্যই লজ্জার'
'হাসান আজিজুল হকের নোবেল না পাওয়া কর্তৃপক্ষের জন্যই লজ্জার'

শওগাত আলী সাগর

'হাসান আজিজুল হকের নোবেল না পাওয়া কর্তৃপক্ষের জন্যই লজ্জার'

Other

সাহিত্যে হাসান আজিজুল হকের নোবেল পুরষ্কার না পাওয়াটা হাসান আজিজুল হকের ব্যর্থতা বা তার যোগ্যতাহীনতা না, এটি নোবেল কর্তৃপক্ষের জন্যই বরং লজ্জার ব্যাপার যে তারা এমন একজন শক্তিশালী লেখককে স্বীকৃতি দিতে পারেনি।

সাহিত্যে যে সব কবি বা লেখক নোবেল পুরষ্কার পেয়েছেন, তাদের সাহিত্যকর্ম, সাহিত্যের মানের বিবেচনায় নিলে এই বাংলা সাহিত্যে বেশ কয়েকজন লেখক আছেন যারা নোবেল পুরষ্কার বিজয়ী লেখকদের চেয়ে মানসম্মত লিখেছেন। আমি তো মনে করি কবি জীবনানন্দ দাশ, কবি টি এস ইলিয়টের চেয়েও ভালো কবি। তাঁর তো নোবেল পুরষ্কার না পাওয়ার কোনো কারনই ছিলো না।

–  এই কথাগুলো বলছিলেন কবি আসাদ চৌধুরী।

টরন্টো ফিল্ম ফোরাম সন্ধ্যায় হাসান আজিজুল হককে স্মরণ করতে একটি আলোচনা সভার আয়োজন করেছিলো। সেখানে মূল বক্তা ছিলেন কবি আসাদ চৌধুরী। হাসান আজিজুল হকের সাথে নিজের নানা স্মৃতি তুলে ধরে লেখক হিসেবে হাসান আজিজুল হকের শক্তিমত্তা নিয়ে অনেক কথাই বলেছেন এই কবি।  

কোনো সাহিত্য সংগঠন নয়, লেখক- সাহিত্যিকরা নন- টরন্টোয় হাসান আজিজুল হককে স্মরণ করে এখন পর্যন্ত একমাত্র আয়োজনটি করেছে কানাডায় বসবাসরত বাংলাদেশি চলচ্চিত্রসেবীদের সংগঠন টরন্টো ফিল্ম ফোরাম। ফোরামকে ধন্যবাদ জানাই- শক্তিমান এই লেখকের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর আয়োজনের জন্য।

(সোশ্যাল মিডিয়া বিভাগের লেখার আইনগত ও অন্যান্য দায় লেখকের নিজস্ব। এই বিভাগের কোনো লেখা সম্পাদকীয় নীতির প্রতিফলন নয়। )

আরও পড়ুন:

ফার্মগেট-সাইন্সল্যাবে শিক্ষার্থীদের গাড়ি ভাঙচুর


news24bd.tv/ নকিব