তাইওয়ান ইস্যুতে বাড়ছে উওেজনা (ভিডিও)

তাইওয়ান ইস্যুতে বাড়ছে উওেজনা (ভিডিও)

Other

দক্ষিণ কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র, ভারতের যুদ্ধবিমান কিংবা চীনের সামরিক শক্তি বৃদ্ধি আর নতুন অস্ত্র তৈরির প্রতিযোগিতা এশিয়া অঞ্চলকে যুদ্ধ ঝুঁকির মধ্যে ফেলে দিয়েছে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের এক বিশেষ প্রতিবেদনে এমন আশঙ্কা করা হয়েছে। এদিকে ক্রমশ সামরিকী-করণের সাথে তাইওয়ান ইস্যুতে বাড়ছে উওেজনা। বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, একটি ভুল হিসাবে পুরো অঞ্চলে যুদ্ধ ছড়িয়ে পড়তে পারে।

মাসুদ রানার ডেস্ক রিপোর্ট।

মার্কিন গনমাধ্যম সিএনএন বলছে, ধিরে ধিরে এশিয়া পরিণত হচ্ছে পাউডার কেজএ। যে শব্দটি ভয়াবহ পরিস্থিতিতে সহিংসতার ধরন বোঝাতে ব্যাবহার করা হয়। যেখানে উত্তেজনা থাকে তুঙ্গে। বর্তমানে চীনা পিপলস লিবারেশন আর্মি বিশ্বের সবচেয়ে বড় নৌবাহিনীও তৈরি করেছে। ২০২২ সালের মধ্যে বিশ্বের সর্বাধুনিক ও সবচেয়ে উন্নত যুদ্ধবিমানবাহী রণতরী নির্মাণ করতে কাজ করছে তারা। রয়েছে পরমাণু অস্ত্রের বিশাল মজুদ।

কয়েক মাস হলো তাইপে এবং বেইজিংয়ের মধ্যে সৃষ্ট উত্তেজনায় বৈশ্বিক দৃষ্টি আকৃষ্ট হয়েছে। হুমকি আর পাল্পা হুমকির মধ্যে বাড়ছে উওেজনা। তাইপে আক্রান্ত হলে সহায়তা ঘোষণা দিয়েছে জাপান। যুক্তরাষ্ট্রও দেশটির সুরক্ষায় এগিয়ে আসবে। অনেকেই মনে করছেন যুদ্ধের শুরুটা হতে পারে এখান থেকেই।

আরও পড়ুন:

পাকিস্তানকে সমর্থন করলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে : মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী

মাটির পাত্রে চা পান কি নিরাপদ?

চীন এবং উত্তর কোরিয়ার হুমকির জবাব দিতে পূর্ব এশিয়ায় জাপান এবং দক্ষিণ কোরিয়া দ্রুততার সঙ্গে তাদের সামরিক সক্ষমতাকে আধুনিকায়ন করছে । গেল মাসেও নতুন একটি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া। উন্নত করছে পরমাণু অস্ত্রের সাবমেরিনগুলো।

অন্যদিকে হিমালয় পাদদেশে সীমান্ত বিরোধ নিয়ে সম্প্রতি চীনের সঙ্গে সংঘর্ষ তিব্র হচ্ছে ভারতের। এরপর সীমান্তে সামরিক বিনিয়োগ বৃদ্ধি করেছে ভারত। এমনিতেই দীর্ঘদিনের প্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের সঙ্গে  উত্তেজনা বাড়ছে ভারতের। এছাড়া পুরো এশিয়া যেন নীরবতার সঙ্গে অস্ত্র প্রতিযোগিতা চালিয়ে যাচ্ছে। বাড়ছে যুদ্ধ ঝুঁকি।

 news24bd.tv/এমি-জান্নাত