প্রেমিকসহ স্বামীকে হত্যা করে লাশ বাড়ি নিয়ে আসেন স্ত্রী!
Breaking News
প্রেমিকসহ স্বামীকে হত্যা করে লাশ বাড়ি নিয়ে আসেন স্ত্রী!

প্রেমিকসহ স্বামীকে হত্যা করে লাশ বাড়ি নিয়ে আসেন স্ত্রী!

অনলাইন ডেস্ক

স্ত্রী লিজা এবং পরকীয়া প্রেমিক শাহীন শ্বাসরোধ করে তার স্বামী প্রতীক হাসানকে হত্যা করে। এরপর স্বামী প্রতীক হাসান 'হার্ট অ্যাটাকে' মারা গেছেন দাবী করে লাশ নিয়ে শ্বশুর বাড়ি  ফেরেন। স্বামীর লাশ নিয়ে বাড়িতে আসেন স্ত্রী লিজা আক্তার, শাশুড়ি ও দাদি শাশুড়ি। কিন্তু লাশের শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখে সন্দেহ হয় প্রতীকের পরিবারের।

এরপর স্ত্রীসহ তাদেরকে আটক করে পুলিশে দেয় নিহতের পরিবার। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে স্ত্রী স্বীকার করেন, পরকীয়া প্রেমে বাধা দেওয়ায় স্বামীকে হত্যা করেছেন তিনি। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন প্রেমিক।

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার কাজলা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে । সাগড়দিঘী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিদর্শক মনিরুজ্জামান আটককৃতদের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানান। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- স্ত্রী লিজা আক্তার, নিহতের শাশুড়ি ফাতেমা ও দাদি শাশুড়ি লাকি আক্তার। মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিহত প্রতীক হাসান ওই গ্রামের বিল্লাল মিয়ার ছেলে। দুই বছর আগে পার্শ্ববর্তী ঘোনারদেউলী গ্রামের লেবু মিয়ার মেয়ে লিজা আক্তারকে বিয়ে করেন। স্ত্রীকে নিয়ে ঢাকার সাভারে বসবাস ও পোশাক কারখানায় চাকরি করতেন তিনি।

পুলিশ পরিদর্শক মনিরুজ্জামান বলেন, নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। লিজার বক্তব্য অনুযায়ী লিজা এবং পরকীয়া প্রেমীক শাহীন শ্বাসরোধ করে তার স্বামী প্রতীক হাসানকে হত্যা করেছে। ঘটনাটি আশুলিয়া থানা এলাকায় ঘটেছে। তাই আমরা লিজাসহ আটক আরো দুইজনকে আশুলিয়া থানা পুলিশোর কাছে হস্তান্তর করেছি।  

আরও পড়ুন:

ঢাবির গ ইউনিটের ফল প্রকাশ, ৭৮ শতাংশই ফেল

বুলগেরিয়ায় বাসে আগুন লেগে নিহত ৪৬

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ আটক ১২৯


আশুলিয়া থানার উপপরিদর্শক কায়সার হামিদ জানান, লিজা তার প্রেমিক শাহীনসহ চারজনকে আসামি করে মামলা হয়েছে। লিজা, লিজার মা ফাতেমা ও দাদি লাকিকে গাজীপুর আদালতে মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। অপর আসামি লিজার প্রেমিক শাহীন পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

news24bd.tv/আলী

;