ইউপি সদস্য হত্যা: দুইজন ধরা
Breaking News
ইউপি সদস্য হত্যা: দুইজন ধরা

নোয়াখালীর হাতিয়ার চর ঈশ্বর ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য রবীন্দ্র চন্দ্র দাস হত্যা।

ইউপি সদস্য হত্যা: দুইজন ধরা

Other

নোয়াখালীর হাতিয়ার চর ঈশ্বর ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য রবীন্দ্র চন্দ্র দাস হত্যা মামলায় দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

গ্রেপ্তাররা হলো- উপজেলার চরইশ্বর ইউনিয়নের মো. মিরাজ উদ্দিনের ছেলে মিলন মিয়া (৩৮) ও চরকিং ইউনিয়নের গামছাখালী গ্রামের হাবিবুল্লাহ মিয়ার ছেলে আজমির হোসেন (৩২)।

মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান মুন্সি এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এর আগে একই দিন দুপুরে অভিযান চালিয়ে দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তিনি আরো বলেন, গ্রেপ্তার মিলন বিকেলে হাতিয়ার আমলি আদালতের বিচারক নিজাম উদ্দিনের আদালতে ১৬৪ ধারায় হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে।
 
উল্লেখ্য, গত ৯ জুন দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে নোয়াখালীর বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার চরঈশ্বর ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা রবীন্দ্র চন্দ্র দাসকে (৪২) গুলি করে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বত্তরা। নিহত রবিন্দ্র চন্দ্র দাস চরঈশ্বর ৩ নম্বর ওয়ার্ডের স্বতিষ চন্দ্র দাসের ছেলে। তিনি ওই ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য (মেম্বার) ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ছিলেন। দলীয় কোন্দল ও পূর্ব বিরোধের জেরে এ হত্যাকাণ্ড হয়েছে বলে দাবি নিহতের স্বজনদের। পরে এ ঘটনায় নিহতের ছেলে রিকেল চন্দ্র দাস বাদী হয়ে ৬৪ জনকে আসামি করে হাতিয়া থানায় মামলা করেন।   এ মামলায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এ পর্যন্ত ১২ আসামিকে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে।

আরও পড়ুন:


ম্যারাডোনা ছোট স্তন পছন্দ করতেন না


 

news24bd.tv/তৌহিদ