শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ০২ ঘন্টা ০৩ মিনিট আগে

সালাহর মতো ফুটবলার পেয়েছে ইরাক

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

সালাহর মতো ফুটবলার পেয়েছে ইরাক

ইরাকি ফুটবলের জন্য সুখবর। সেই সঙ্গে বিশ্ব ফুটবলের জন্যও। বিশ্বনন্দিত মোহাম্মদ সালাহর মতো ফুটবলার পেয়েছে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটি। শুনলে অবাক হবেন, তার চেহারা, চলনবলন, খেলার ধরন একেবারে/অবিকল মিসরীয় কিং-এর মতো।

ইরাকি এ স্ট্রাইকারের নাম হুসেইন আলি। খেলেন আল জাউরা ক্লাবে। ইতোমধ্যে তাকে নিয়ে তোলপাড় পড়ে গেছে মধ্যপ্রাচ্যে।

নানা সময়ে দলের হয়ে বিভিন্ন অঞ্চলে খেলতে যান আলি। এতে মধুর সমস্যায় পড়েন তিনি। লিভারপুল তারকার মতো হুবহু কালো দাড়ি, কোঁকড়া চুল ও ফুটবল জার্সি হওয়ায় সালাহ ভেবে তাকে জড়িয়ে ধরেন দর্শকরা। তাতে মোটেও বিব্রতবোধ করেন না তিনি। বরং সানন্দে তা উপভোগ করেন।

জাউরা ক্লাবের প্রাণভোমরার স্বপ্ন সালাহর মতো হওয়া। তাই প্রতি পদে পদে মিসরের রাজাকে অনুসরণ করেন তিনি, আমরা একই পজিশনে খেলি। আমি তার সব কিছুই কপি করি। সে কীভাবে হাঁটে, বল নিয়ে দৌড়ায়, বেশভুষা-সব।

আলি যোগ করেন, সে পবিত্র কোরআন পড়ে এবং ম্যাচের আগে মহান আল্লাহর কাছে সাহায্য চেয়ে প্রার্থনা করে, গোল করলে অবনত হয়ে সেজদাহ দেয়। আমিও কোরআন পড়ি, প্রার্থনা যপি।

তারকাখ্যাতি পেলেও চোখ উল্টেনি সালাহর। গরিব-মিসকিন থেকে শুরু করে সবার আবদার মেটান তিনি। ভক্ত-সমর্থকদের সঙ্গে ছবি তোলেন, সুখ-দুঃখ ভাগাভাগি করেন। যতদূর সম্ভব সহায়তা করেন।

এ দর্শনের বাইরে নন আলিও, একবার লেবানিজ ক্লাব আল আহেদের বিপক্ষে ম্যাচ খেলতে গিয়েছিলাম। দেড় ঘণ্টা ধরে মানুষের সঙ্গে সেলফি তুলেছিলাম। গত পরশু শপিংমলে গিয়েছিলাম। সেখানকার নিরাপত্তকর্মী, দোকান মালিক, ক্রেতা- সবাই আমার সঙ্গে ছবি তুলতে চেয়েছিল। এমনকি মেয়েরাও। প্রত্যেকের আবদার মিটিয়েছি।

চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদ ডিফেন্ডার সার্জিও রামোসের বাজে ট্যাকলের বলির পাঁঠা হয়ে কাঁধের ইনজুরিতে পড়েন সালাহ। এতে কদিন পর পর্দা উঠতে যাওয়া রাশিয়া বিশ্বকাপে তার খেলার নিয়ে সংশয় দেখা যায়। সুসংবাদ এই যে, সুস্থ হয়ে উঠছেন তিনি। মিসরের প্রথম থেকেই খেলবেন দ্য ফারাওখ্যাত ফুটবলার।

 

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/কেআই)

মন্তব্য