পথের বাধা সরিয়ে নিন, মানুষকে এগুতে দিন
Breaking News
পথের বাধা সরিয়ে নিন, মানুষকে এগুতে দিন

পথের বাধা সরিয়ে নিন, মানুষকে এগুতে দিন

Other

আজকের বিশ্ব অর্থনীতিতে দুইজনের নাম আমরা বিশেষভাবে উল্লেখ করতে পারি। একজন ব্রিটিশ জন মেনার্ড কেনজ আরেকজন আমেরিকান মিল্টন ফ্রিডম্যান।

কেনজের তত্ত্ব হচ্ছে, সরকার আরো বেশী করে উন্নয়নমূলক কাজে খরচ করুক এবং বিনিয়োগ করুক তাহলেই অর্থনীতি সুস্থির থাকবে মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে থাকবে। কেনজের এই তত্ত্বে ভর করেই গ্রেইট ডিপ্রেশনের পরে বিশ্ব অর্থনীতি ঘুরে দাড়িয়েছিলো।


 
এই কেনজিয়ান অর্থনীতি নিয়ে নানা সময়ে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। এই তত্ত্বের নানা দুর্বলতাও দেখা দিয়েছে। কেনজিয়ান অর্থনীতির উল্টোদিকে ছিলেন মিলটন ফ্রিডম্যান। ফ্রিডম্যান বলেছিলেন, দেশের অর্থনীতিতে সরকারের ভুমিকা যত কম থাকে ততোই ভালো।
 
মিল্টন ফ্রিডম্যানের তত্ত্বের উপরে ভর করেই এসেছে নিও লিবারাল তত্ত্ব। মিল্টন ফ্রিডম্যানের মতে, রাষ্ট্র একজন ব্যক্তির স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে পারলে; তাকে রাষ্ট্র দিয়ে নিরন্তর বাধা না দিলেই ব্যক্তির বিকাশ হবে এবং এজন্যই রাষ্ট্র উপকৃত হবে। মিল্টন ফ্রিডম্যান মনে করতেন ফেডারেল ব্যাংকের পর্যন্ত প্রয়োজন নেই। ফেডারেল ব্যাংকের জন্যই মুদ্রাস্ফীতি হয় বলে ফ্রিডম্যান মনে করতেন।
 
গ্রামীন ব্যাংকের একটা শ্লোগান আছে, "পথের বাধা সরিয়ে নিন, মানুষকে এগুতে দিন। " এটা মিল্টন ফ্রিডম্যানের নীতির মাঠের প্রয়োগ। এই শিরোনামে প্রফেসর ইউনুসের একটা বইও আছে।

আরও পড়ুন

৪১ বার জিজ্ঞাসাতেও মামুনুলকে স্বামী স্বীকার করলেন না ঝর্ণা

জলবায়ু পরিবর্তন সম্মেলনে শীর্ষে জায়গা করে নিলো দেশের দুই তরুণ

সিটি করপোরেশনের গাড়ির ধাক্কায় নটরডেমের ছাত্র নিহত 

থিওরি কীভাবে প্রাক্টিসে রুপান্তরিত হয় সেটার একটা এক্সাম্পল দেয়ার লোভ সামলাতে পারলাম না জন্যই এই লেখাটা লিখলাম, আর প্রফেসর ইউনুসের গ্রামীন ব্যাংক যে একটা নিও লিবারেল প্রজেক্ট সেটা নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন এখন?

লেখাটি শান্তা আনোয়ার- এর ফেসবুক থেকে নেওয়া (সোশ্যাল মিডিয়া বিভাগের লেখার আইনগত ও অন্যান্য দায় লেখকের নিজস্ব। এই বিভাগের কোনো লেখা সম্পাদকীয় নীতির প্রতিফলন নয়। )

 news24bd.tv/এমি-জান্নাত     

;