পাটবীজ চাষে আগ্রহী বাড়ছে বগুড়ার চাষিরা
Breaking News
স্বল্প খরচে লাভজনক হওয়ায়

পাটবীজ চাষে আগ্রহী বাড়ছে বগুড়ার চাষিরা

Other

সরকারি প্রনোদনা ও স্বল্প খরচে লাভজনক হওয়ায় পাটবীজ চাষে আগ্রহী হচ্ছে বগুড়ার চাষিরা। পাটের বীজ উৎপাদনে কৃষি বান্ধব সরকারের স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনের লক্ষ্য বাস্তবায়নে পরামর্শ দিচ্ছে পাট ও কৃষি বিভাগ।

লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হলে জেলার চাহিদা মিটিয়ে অন্য জেলায় ছড়িয়ে পড়বে বগুড়া পাটবীজ, এমন প্রত্যাশা সংশ্লিষ্টদের।  

বাংলাদেশের পাটবীজ এখনও আমদানি নির্ভর।

যার পুরোটাই ভারত থেকে আসে। বিদেশ নির্ভরতা কমিয়ে পাটবীজে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী ও সময়োপযোগী উদ্যোগে পাটের বীজ উৎপাদনে লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে সরকার। এরই অংশ হিসেবে বগুড়ায় কাজ করছে পাট অধিদপ্তর ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।

সরকারি প্রনোদনায় বীজ, সার, কীটনাশক, স্প্রে মেশিন পেয়ে সদর উপজেলা, গাবতলী, সোনাতলা, সারিয়াকান্দি ও ধুনট উপজেলায় ৭৮ একর জমিতে পাটবীজ চাষ করেছেন ৮ শতাধিক কৃষক।

স্বল্প খরচে লাভজনক এবং নিজেদের উৎপাদিত বীজ থেকে ভালো ফসল প্রত্যাশায় চাষীরাও দিনদিন  আগ্রহী হচ্ছেন পাটের বীজ উৎপাদনে।

আরও পড়ুন


ভাইরাল ছবি হাছান মাহমুদের নয়!


স্থানীয় কৃষি বিভাগের দাবি দেশে উৎপাদিত বীজের মান আমদানী করা বীজের চেয়ে ভালো, লক্ষ্যমাত্রা পূরন হলে জেলার চাহিদা মিটিয়ে অন্য জেলাতেও বীজ সরবরাহ করা যাবে।

চলতি বছরে জেলায় ১২ হাজার ১৬৮ হেক্টর জমিতে পাট উৎপাদন হয়েছিল দেড় লাখ মেট্রিকটনেরও বেশি।

news24bd.tv/ কামরুল 

;