নির্বাচন নিয়ে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ
নির্বাচন নিয়ে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ

সংঘর্ষে আহতরা।

নির্বাচন নিয়ে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ

Other

ঝিনাইদহের শৈলকূপায় ইউপি নির্বাচন নিয়ে দু’দল গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে ৩ পুলিশসহ উভয় পক্ষের কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন।

আহতদের মুমূর্ষু অবস্থায় শৈলকূপা উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনা নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৩ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে।  

আজ রোববার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার হাকিমপুর ইউনিয়নের বিপ্রবকদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষে পুলিশের আহতরা হলেন- শৈলকূপা থানার এসআই সিহাবুল ইসলাম, কনস্টেবল খাদেমুল ইসলাম ও ইকবাল হোসেন। গ্রামবাসীদের মধ্যে আহতরা হলেন- মর্জিনা খাতুন, মেহেদী, আয়ুব, রহিম, নবিরুল, কুদ্দুস, লিটন, হাফিজ, নবাব, রাসেল, রফিক, আজিজসহ ২০ জন।

পুলিশ ও গ্রামবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বিপ্রবকদিয়া গ্রামে আগে থেকেই আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বর্তমান চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান জিকু ও বিপ্রবকদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামান সাচ্চু গ্রুপের লোকজন দু’ভাগে বিভক্ত ছিল। রোববার সকালে দুই দলের সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে বিষয়টি এলাকাবাসীর মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে গ্রামবাসী দু’দলে বিভক্ত হয়ে দেশীয়ও অস্ত্রশস্ত্র সজ্জিত হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে দুই পক্ষের প্রায় ২০ জন আহত হয়।   

শৈলকূপা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়েছেন। তবে এ ঘটনায় কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি।

আরও পড়ুন: 


তাইজুল ম্যাজিকে লিড পেলো বাংলাদেশ


 

উল্লেখ্য, গতকাল শৈলকূপা উপজেলার ১২টি ইউনিয়নের নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার পরে বিভিন্ন ইউনিয়নের একাধিক প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোনো সময় আরও সংঘর্ষের আশঙ্কা করছে এলাকাবাসী।

news24bd.tv তৌহিদ

;