অবাধ মেলামেশা, এইডস ঝুঁকিতে দৌলতদিয়া যৌনপল্লী
Breaking News
অবাধ মেলামেশা, এইডস ঝুঁকিতে দৌলতদিয়া যৌনপল্লী

ফাইল ছবি

বিশ্ব এইডস দিবস আজ

অবাধ মেলামেশা, এইডস ঝুঁকিতে দৌলতদিয়া যৌনপল্লী

অনলাইন ডেস্ক

আজ বিশ্ব এইডস দিবস। এইডস সম্পর্কে মানুষ সচেতন করতে প্রতিবছরই এই দিবসটি পালন করা হয়। রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ঘাট রেলস্টেশনের পাশে দেশের সবচেয়ে বড় যৌনপল্লী। এই পল্লীতে প্রায় তিন হাজার যৌনকর্মীর বসবাস।

তবে অবাধ মেলামেশার কারণে এইডস সংক্রমণে মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থানে দৌলতদিয়া যৌনপল্লী। ঝুঁকিপর্ণ এই পল্লীতে এইডস প্রতিরোধে অবশ্য বেসরকারি সংস্থাগুলোর পক্ষ থেকে নানা কার্যক্রম চালানো হচ্ছে।

অবাধ যৌন মেলামেশার কারণে স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ দৌলতদিয়া পতিতাপল্লীকে মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা হিসেবে বিবেচনা করছে। উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ বলছে, ওই পল্লীর সব যৌনকর্মী ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা সহজেই এইচআইভি এইডসে আক্রান্ত হতে পারে।

এইডস প্রতিরোধে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে কাজ করছে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ‘পায়াক্ট বাংলাদেশ’। সংস্থাটির দৌলতদিয়া কার্যালয়ের ব্যবস্থাপক মো. মজিবর রহমান জুয়েল বলেন, এইচআইভি এইডস প্রিভেনশন প্রগ্রাম ফর ব্রোথেলস সেক্সওয়ার্কার অ্যান্ড দেয়ার ক্লায়েন্ট প্রকল্পের আওতায় কাউন্সেলিং করে দৌলতদিয়া পল্লীর যৌনকর্মীদের স্বাস্থ্যসচেতন করছেন তাঁরা।

এদিকে পল্লীতে এইচআইভি এইডস প্রতিরোধে পায়াকেটর পাশাপাশি কাজ করছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। দৌলতদিয়া গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. জুুলফিকার আলি বলেন, ‘এইচআইভি এইডস সচেতনতা ও নিবারণ’ প্রকল্পের আওতায় দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে নিয়মিত ‘স্যাটেলাইট ক্যাম্প’ পরিচালনা করছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র।

গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আসিফ মাহমুদ বলেন, এইডসের হাত থেকে রক্ষা পেতে সবাইকে সচেতন হতে হবে।

আরও পড়ুন


ভারতের মতো প্রতিষ্ঠান কি আমরা গড়ে তুলতে পারি না?

news24bd.tv এসএম

;