ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার
ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার

প্রতীকী ছবি

৯৯৯ এ ফোন কলে

ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক

‘জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে এক কলারের ফোন কলে মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে এক মাদ্রাসা শিক্ষককে আটক করেছে নারায়ণগঞ্জের বন্দর থানাধীন বন্দর ফাঁড়ির পুলিশ।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে ৯৯৯ নম্বরে একজন কলার জানান, নারায়ণগঞ্জের বন্দর থানাধীন বন্দর পৌরসভার কাছাকাছি ছদকার বাড়ি এলাকার একটি মাদ্রাসার এক শিক্ষক মাদ্রাসার ছাত্রীকে ধর্ষণ করেছে।  

কলার আরও জানান, তিনি ঘটনাস্থলের কাছাকাছি একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মচারী, বর্তমানে এলাকার লোকজন ও মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ মিলে ভুক্তভোগী দরিদ্র শিশুটির পরিবারকে ডেকে এনে মিমাংসার চেষ্টা করছে। কলার আশঙ্কা করছেন দরিদ্র পরিবারটি ন্যয়বিবচার থেকে বঞ্চিত হতে পারে।

আরও পড়ুন


বাসে আগুন দেয়ার ঘটনায় মামলা, আসামি ৮ শতাধিক

বিদেশে পালাতে চেয়েছিলেন মেয়র আব্বাস


৯৯৯ থেকে তাৎক্ষণিক ভাবে বিষয়টি বন্দর থানায় জানিয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে বলা হয়। সংবাদ পেয়ে বন্দর থানাধীন বন্দর ফাঁড়ি পুলিশের একটি দল দ্রুত ঘটনাস্থলে যায়।

পরে বন্দর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর (পরিদর্শক) সঞ্জয় সরকার ৯৯৯ কে ফোনে জানান, তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে ভুক্তভোগী নয় বছর বয়সী শিশুকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন এবং ধর্ষণের অভিযোগে জামিয়া আরাবিয়া দারুল কুরআন মাদ্রাসার শিক্ষক মো. রাকিবুল ইসলাম (২১) কে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসেন।

এ বিষয়ে বন্দর থানায় নারী ও  শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা রুজু করা হয়েছে।

news24bd.tv/ কামরুল 

;