ফেসবুকেও মুরাদের ‘ভুল’
ফেসবুকেও মুরাদের ‘ভুল’

ফেসবুকেও মুরাদের ‘ভুল’

অনলাইন ডেস্ক

বিতর্কিত মন্তব্য ও অডিও রেকর্ড ফাঁসের পর প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) দুপুরে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। কিন্তু  প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো পদত্যাগপত্রে ভুল করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী । সেই ভুলের পর এবার ​ফেসবুকে মন্তব্য করতে গিয়েও ‘ভুল’ করলেন অশালীন ও শিষ্টাচারবহির্ভূত বক্তব্যের জেরে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রীর পদ হারানো মুরাদ।

সম্প্রতি অশালীন ও শিষ্টাচারবহির্ভূত বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়ে মঙ্গলবার ফেসবুকে পোস্ট দেন তিনি।

সেখানেই মন্তব্য করতে গিয়ে ফের ‘ভুল’ করেন মুরাদ।

তিনি লেখেন, ‘আমি যদি কোনো ভুল করে থাকি অথবা আমার কথায় মা-বোনদের মনে কষ্ট দিয়ে থাকি তাহলে আমাকে ক্ষমা করে দেবেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মমতাময়ী মা দেশরত্ন বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সকল সিদ্ধান্ত মেনে নেব আজীবন। জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু’।

এরপর তিনি তার নিজের স্ট্যাটাসে নিজেই কমেন্ট করেন। যা হাসির খোরাক জোগায় নেটিজনদের। তিনি কমেন্টেসে লিখেন, “ ভুল করে সবাই নিজের ভুল মেনে নেওয়ার সততা দেখায় না। আল্লাহ আপনাকে সঠিকভাবে ফিরিয়ে আনুন সকলের মাঝে। ”

 আরও পড়ুন : দুপুরেই ঢাকা ছাড়েন তথ্য প্রতিমন্ত্রী

সারাদেশে তুমুল বিতর্কের মুখে থাকা ডা. মুরাদের ওই মন্তব্যে অনেকেই হাসির ইমোজি দেন। নিজেই নিজেকে ‘আপনি’ সম্বোধন করে মন্তব্য করায় মুরাদ হাসানকে ‘তুলোধুনো’ করেন অনেক নেটিজেন।

এদিকে, করিম খান নামে একজন কমেন্ট করেছেন, “নিজের পোস্টে নিজেই সান্ত্বনা দিচ্ছে”।  

শান্তা নামে একজন কমেন্ট করেছেন, “বেচারা ভুলে রিয়েল আইডি থেকে কমেন্ট করে ফেলছে। ”

আরও পড়ুন :  র‍্যাব সদর দফতরে চিত্রনায়ক ইমন

প্রসঙ্গত, চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির সঙ্গে মুরাদ হাসানের অশ্লীল কথোপকথোনের অডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। তাকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের দিয়ে তুলে নিয়ে ধর্ষণেরও হুমকি দেন তিনি। এসব নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে মন্ত্রিসভা থেকে মুরাদের পদত্যাগের দাবি ওঠে। এরপর সোমবার রাতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জানান, মুরাদকে মঙ্গলবারের মধ্যে পদত্যাগ করতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। পরে আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে পদত্যাগ পত্র জমা দেন ডা. মুরাদ হাসান।

news24bd.tv/আলী