এবার এমপি পদও হারাচ্ছেন ডা. মুরাদ হাসান!
এবার এমপি পদও হারাচ্ছেন ডা. মুরাদ হাসান!

ফাইল ছবি

এবার এমপি পদও হারাচ্ছেন ডা. মুরাদ হাসান!

অনলাইন ডেস্ক

বেশ কয়েকদিন থেকেই টক অব দ্যা টাউন সংসদ সদস্য ডা. মুরাদ হাসান। নানা বিতর্কিত মন্তব্য এবং নায়িকা মাহির সঙ্গে একটি আপত্তিকর অডিও ফাঁসের পর থেকে তাকে প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকে বহিষ্কারের দাবি উঠে। পরে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগে বাধ্য হয়েছেন মুরাদ হাসান।

এরইমধ্যে জামালপুর আওয়ামী লীগের জেলা কমিটির স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যাবিষয়ক পদ থেকেও তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

দলের প্রাথমিক সদস্য পদও হারাতে পারেন তিনি। দল থেকেও বহিষ্কার করা হতে পারে তাকে।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের সূত্রে জানা গেছে, ডা. মুরাদ হাসানকে দল থেকে বহিষ্কার করা হবে কি না সে বিষয়ে আগামী কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সর্বশেষ বাকি থাকে শুধু সংসদ সদস্য পদ। আইনি জটিলতা থাকলেও শেষ পর্যন্ত সেই পদও হারাতে পারেন তিনি।

দলের এক সাংগঠনিক সম্পাদক গণমাধ্যমকে বলেন, সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে আওয়ামী লীগের। তাই কাউকে পদ থেকে ছাঁটাই করতে কোন সমস্যা নেই।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাসিম গণমাধ্যমকে বলেন, ডা. মুরাদ হাসানের কাছ থেকে নারীদের নিয়ে অসম্মানজনক বক্তব্য কোন ভাবেই কাম্য নয়। তার কাছ থেকে এ ধরণের বক্তব্য কেউ আশা করেনি। তার কারণে আমরা বিব্রত ও লজ্জিত।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, আওয়ামী লীগ থেকে কেউ অন্যায় করে ছায় পায়নি ভবিষ্যৎতেও পাবে না। অন্যায় করলে আওয়ামী লীগ কাউকে ছাড় দেয় না।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের কাছে ডা. মুরাদ হাসানের প্রাথমিক সদস্যপদ বাতিল কিংবা বহিষ্কৃত হবেন কি না জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠক হলে তখন এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। আর তার এমপি পদ থাকবে কিনা সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন স্পিকার।

আরও পড়ুন


নীলফামারীতে ট্রেনের কাটা পড়ে তিন ভাই-বোনসহ নিহত ৪

news24bd.tv এসএম