ইউক্রেনে হামলা হলে কঠোর জবাব দেয়ার হুঁশিয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের
ইউক্রেনে হামলা হলে কঠোর জবাব দেয়ার হুঁশিয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের

ফাইল ছবি

ইউক্রেনে হামলা হলে কঠোর জবাব দেয়ার হুঁশিয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের

ইউক্রেনে হামলা হলে কঠোর জবাব দেয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। মঙ্গলবার ভিডিও কনফারেন্সে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে এ হুঁশিয়ারি দেন  জো বাইডেন । সতর্ক করেন, ইউক্রেনে আগ্রাসন চালালে কঠিন নিষেধাজ্ঞার সম্মুখীন হবে রাশিয়া । এদিকে, ন্যাটো-কে পূর্বদিকে সম্প্রসারণ না করতে বাইডেনকে সতর্ক করেছেন পুতিন।

ইউক্রেনকে কেন্দ্র করে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার মধ্যে উত্তেজনা বাড়ছেই। যার প্রমাণ মেলে মঙ্গলবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের মধ্যকার ভার্চ্যুয়াল বৈঠকেও।  মার্কিন প্রেসিডেন্ট এমন সময় এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করলেন, যখন ইউক্রেনের সীমান্তে প্রায় এক লাখ রুশ সেনা অবস্থান নিয়েছে।

এই ইস্যুতে পুতিনকে কঠিন বার্তা দেন বাইডেন। জানান, ইউক্রেনের চারপাশে রাশিয়ার শক্তি বৃদ্ধির বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র এবং এর ইউরোপীয় মিত্রদের গভীর উদ্বেগের কথা ।

এই নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়তে পারে রাশিয়ার সবচেয়ে বড় ব্যাংকগুলোসহ প্রেসিডেন্ট পুতিনের ঘনিষ্ঠ মহল এবং রাশিয়ার জ্বালানি উৎপাদকরা। ইউক্রেইনে হামলা চালানোর জন্য দেশটির সীমান্তের কাছে হাজার হাজার রুশ সেনা মোতায়েন করা থেকে পুতিনকে সরিয়ে আনাই এ নিষেধাজ্ঞার লক্ষ্য।

আরও পড়ুন

সরকারি কর্মীদের জন্য কাজের নতুন সময়সীমা

৭ তলা ভবন থেকে লাফ দিল স্কুলছাত্র

মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট-ন্যাটোকে রাশিয়ার সীমান্তের দিকে এগিয়ে নেয়ার ব্যাপারে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন পুতিন। তিনি বলেন, পূর্ব দিকে ন্যাটো জোটের সম্প্রসারণ তার দেশের জন্য মারাত্মক হুমকি । রুশ প্রেসিডেন্ট আশা করেন, ন্যাটোর মাধ্যমে রাশিয়ার ক্ষতি হয় এমন কোনো পদক্ষেপ নেবে না বাইডেন প্রশাসন।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত