কোটি টাকা দিয়ে কেনা দুই সী অ্যাম্বুলেন্স পড়ে আছে 

সন্দ্বীপের মানুষের জন্য 

কোটি টাকা দিয়ে কেনা দুই সী অ্যাম্বুলেন্স পড়ে আছে 

নয়ন বড়ুয়া জয়

চট্টগ্রামের সন্দ্বীপের মানুষের জন্য কোটি টাকা দিয়ে কেনা দুই সী অ্যাম্বুলেন্স পড়ে আছে বহুবছর। প্রতিনিয়তই জটিল রোগী নিয়ে ভোগান্তির শেষ নেই সাগরবেষ্টিত দ্বীপবাসীর।  

উন্নত চিকিৎসার আশায় সমুদ্র পথেই জটিল রোগী নিয়ে চট্টগ্রামে পাড়ি দিতেই মৃত্যু হয় অনেকের। স্থানীয় সংসদ সদস্য মাহফুজুর রহমানের অভিযোগ, উত্তাল সাগর পাড়ি দেয়ার সক্ষমতা নেই এসব সী অ্যাম্বুলেন্সের।

হাওর অঞ্চলের উপযোগী সী অ্যাম্বুলেন্স সন্দ্বীপে দেয়ায় আসছে কোন কাজে। আর সিভিল সার্জন বলছেন, এসব বিষয়ে পত্র পাঠাবে দপ্তরে।  

চট্টগ্রামের মূল ভূখন্ড থেকে বিচ্ছিন্ন জনপদের নাম সন্দ্বীপ। সাগরবেষ্টিত সন্দ্বীপে ভালমানের সরকারি হাসপাতাল না থাকায় সমুদ্র পাড়ি দিয়েই অসুস্থ রোগীদের নিয়ে আসা হয়। ট্রলার বা স্পিডবোটে করে চট্টগ্রামে। তা’ও আবার দিনের বেলা। রাতে কোন প্রসূতি রোগীর খারাপ অবস্থা হলে উন্নত চিকিৎসায় চট্টগ্রামে আনতে চাইলেও আনা যায়না উত্তাল সাগরে ভাল মানের ট্রলার কিংবা স্পীড বোট না থাকার কারণে।

দীর্ঘ ১৩ বছরের বেশি সময় ধরে পড়ে থাকা উপজেলা স্বাস্থ্যবিভাগকে দেয়া সী অ্যাম্বুলেন্স আর উপজেলা প্রশাসনকে সাড়ে পাঁচ বছর আগে দেয়া উন্নতমানের আরো একটি সী অ্যাম্বুলেন্স থাকলেও চলেনা পানিতে। তাই দুর্ভোগের শেষ নেই এই দ্বীপ অঞ্চলের মানুষের।

আরও পড়ুন:


রায়ের পর আবরার ফাহাদের মা যা বললেন!

ধর্ষণের অভিযোগে ডিবি’র এসআই গ্রেপ্তার


জনপ্রতিনিধিরা বলছেন হাওর অঞ্চলের উপযোগী সী অ্যাম্বুলেন্স  হওয়ায় উত্তাল সাগর পাড়ি দিতে পারছেনা এসব অ্যাম্বুলেন্স।

বিচ্ছিন্ন এই দ্বীপের সাড়ে চার লাখ মানুষের উন্নত চিকিৎসা দিতে সী অ্যাম্বুলেন্সের কোন বিকল্প নেই বললেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান।

আর সিভিল সার্জন বলছেন দীর্ঘদিন ধরে পড়ে থাকা সী অ্যাম্বুলেন্স সচল করতে পত্র দেবে সংশ্লিষ্ট দপ্তরকে। তবে পরিকল্পিতভাবে এই সী অ্যাম্বুলেন্স ক্রয় না করার কারনেই দুর্ভোগ থেকেই গেল সন্দ্বীপের বাসিন্দাদের।

news24bd.tv/ কামরুল