যুগ যুগ ধরে অন্ধকারাছন্ন সন্দ্বীপে বিদ্যুতের আলো
যুগ যুগ ধরে অন্ধকারাছন্ন সন্দ্বীপে বিদ্যুতের আলো

সন্দ্বীপের বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র

যুগ যুগ ধরে অন্ধকারাছন্ন সন্দ্বীপে বিদ্যুতের আলো

নয়ন বড়ুয়া জয়, চট্টগ্রাম

দেশের মূল ভূখন্ড থেকে বিচ্ছিন্ন চট্টগ্রামের সন্দ্বীপের বেশিরভাগ এলাকা এখন বিদ্যুতের আলোতে আলোকিত। যুগ যুগ ধরে অন্ধকারাছন্ন দ্বীপে বিদ্যুৎ পেয়ে খুশি বাসিন্দারা। পেয়েছে দ্রুত গতির ইন্টারনেট সংযোগও।

চট্টগ্রাম বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান প্রকৌশলী বলছেন, সাগরের তলদেশ দিয়েই সাবমেরিন ক্যাবলের মাধ্যমেই বিচ্ছিন্ন দ্বীপ সন্দ্বীপে বিদ্যুৎ পৌঁছেছে।

জাতীয় গ্রিডের সাথে যুক্ত হওয়ায় পুরো সন্দ্বীপকে বিদ্যুতের আওতায় আনতে যাচ্ছে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড।

শূণ্যদ্বীপ থেকে সন্দ্বীপ। যা দেশের মূল ভূখন্ড থেকে বিচ্ছিন্ন। চট্টগ্রামের এই দ্বীপ উপজেলায় সাড়ে চার লাখের বেশি মানুষের বসবাস। বিচ্ছিন্ন দ্বীপ অন্ধকারে ছিল যুগের পর যুগ। এখন পৌঁছেছে বিদ্যুৎ তাই কেটে গেছে অন্ধকার।

দেশে প্রথমবারের মতো ১৫ কিলোমিটার সাবমেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে জাতীয় বিদ্যুৎ গ্রিডের সঙ্গে সংযুক্ত করা হয় সন্দ্বীপকে। এরই মধ্য দিয়ে শুরু হয় সন্দ্বীপবাসীর স্বপ্নযাত্রা বলে জানান, চট্টগ্রাম বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী দেওয়ান সামিনা বানু।

সমুদ্রবেষ্টিত দ্বীপ এলাকা হলেও সাবমেরিনের কারণেই সন্দ্বীপবাসী পেয়েছে দ্রুতগতির ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগও। বিদ্যুৎ পৌঁছায় এই দ্বীপে গড়ে উঠছে মিল কারখানাও।

আরও পড়ুন


জুতার মালা পরিয়ে প্রবাসীর স্ত্রীকে পেটালেন মেম্বার

news24bd.tv এসএম