স্কুলের গ্রুপে অভিভাবকের পাঠানো নগ্ন ছবি, অতঃপর...
স্কুলের গ্রুপে অভিভাবকের পাঠানো নগ্ন ছবি, অতঃপর...

প্রতীকী ছবি

স্কুলের গ্রুপে অভিভাবকের পাঠানো নগ্ন ছবি, অতঃপর...

অনলাইন ডেস্ক

করোনাভাইরাসের কারণে স্কুল বন্ধ থাকায় অনলাইনেই সারতে হয়েছে শিক্ষা কার্যক্রম। এরই অংশ হিসেবে সামাজিক মাধ্যমগুলোতে শিক্ষা বিষয়ক গ্রুপও অনেক বেড়েছে। এমনই এক হোয়াটসঅ্যাপের গ্রুপে এক শিক্ষার্থীর অভিভাবকের নম্বর থেকে পাঠানো হয়েছে অশ্লীল ছবি! এ নিয়ে ক্ষুব্ধ অন্যান্য অভিভাবকরা। খবর সংবাদ প্রতিদিনের।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তর ২৪ পরগনার ন্যাজাটের ছোট সেহারা হাইস্কুলের পড়ুয়াদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে। অনেক শিক্ষার্থীর নিজের ফোন না থাকায় গ্রুপে অনেক অভিভাবকের নম্বর ছিল। এমন এক শিক্ষার্থীর বাবা দীপঙ্কর পাত্রের নম্বর থেকে স্কুলের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে একের পর এক পাঠানো হয় নগ্ন ছবি। ঘটনায় প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হন অন্যান্য অভিভাবকরা।  

তবে ওই শিক্ষার্থীর বাবার দাবি, তার ফোনটি হারিয়ে গিয়েছে। এবং কে বা কারা এই কাণ্ড ঘটাচ্ছে তা জানা নেই তার।

বিষয়টি নিয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন অন্যান্য অভিভাবকরা। তারা বলেন, ওই শিক্ষার্থীর বাবা আগেও এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন। কিন্তু তিনি প্রভাবশালী হওয়ায় তার বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ করা যায়নি।  

ঘটনায় স্কুলের সভাপতি মানিক মণ্ডলের দিকেও আঙুল তুলেছেন এক শিক্ষক। তিনি বলেন, আমরা শিক্ষকরা এককভাবে কোনও সিদ্ধান্ত নিতে পারি না। প্রধান শিক্ষক না থাকায় স্কুলের যাবতীয় দায় বর্তায় সভাপতির ওপর। সভাপতি ব্যাক্তিগত কারণে স্কুলে আসছেন না।

তবে এই ঘটনায় ওই শিক্ষার্থীর বাবার দাবি মানতে রাজি নন অন্যান্য অভিভাবকরা। কারণ ফোন হারিয়েছে বলে দাবি জানালেও ওই ব্যক্তি এখনও থানায় কোনঅভিযোগ দায়ের করেননি। ফলে ঘটনাটি ইচ্ছাকৃত কিনা এমন প্রশ্ন থেকেই যায়!

আরও পড়ুন


প্রধানমন্ত্রীকে বরখাস্ত করলেন বুরকিনা ফাসোর রাষ্ট্রপতি

news24bd.tv/নকিব

;