পোস্টার টানানোয় প্রতিপক্ষদের পেটালেন নৌকার সমর্থকরা
পোস্টার টানানোয় প্রতিপক্ষদের পেটালেন নৌকার সমর্থকরা

হামলায় আহত ব্যক্তিরা

পোস্টার টানানোয় প্রতিপক্ষদের পেটালেন নৌকার সমর্থকরা

শেখ রুহুল আমিন, ঝিনাইদহ

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার সাগান্না ইউনিয়নের বাথপুকুরিয়া গ্রামে শুক্রবার ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি (স্বতন্ত্র) প্রার্থী আলাউদ্দীন আল মামুনের সমর্থকদের উপর হামলা ঘটনা ঘটেছে। এতে কমপক্ষে ৪-৫ জন আহত হয়েছেন।

স্বতন্ত্র প্রার্থীর মোটরসাইকেল প্রতিক টানানোর অপরাধে তাদের উপর হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ উঠেছে। আহতদের মধ্যে বাথপুকুরিয়া গ্রামের মৃত মনিরুদ্দীন মন্ডলের ছেলে শফি উদ্দীন ও ইশারত মন্ডলের ছেলেকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বাকীরা ডাকবাংলার একটি ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

তবে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন নৌকার প্রার্থী মোজাম্মেল হোসেন।

ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি আহত শফি জানান, শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে বাথপুকুরিয়া গ্রামের একটি মোড়ে বসে ছিলেন। এ সময় নৌকার প্রার্থী মোজাম্মেলের ছেলে সাইফুল ও আশরাফুল এবং উত্তর নারায়নপুর গ্রামের শাহ জামালের ছেলে কামাল লোহার রড ও হকিস্টিক নিয়ে তাদের উপর হামলা চালায়। এ সময় গ্রামে আতংক ছড়িয়ে পড়ে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী আলাউদ্দীন আল মামুন অভিযোগ করেন, নৌকার প্রার্থীর সমর্থকরা সন্ত্রাসী কায়দায় চলাফেরা করছে। এর আগে বৈডাঙ্গা বাজারে তার উপর হামলা করা হয়। গ্রামে গ্রামে তার লোকজনকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। প্রচার কাজে বাধা সৃষ্টি করছে। তিনি এ সব অভিযোগ পুলিশকে জানিয়েছেন। তিনি আরও বলেন ঝিনাইদহ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল বাশার এ ঘটনায় তাকে মামলা করতে পরামর্শ দিয়েছেন।

এব্যাপারে নৌকার প্রার্থী মোজাম্মেল হক জানান, তার কোন লোক এই হামলার সঙ্গে জড়িত নয়। প্রার্থী বিএনপি করলেও তার ২টা স্ত্রী এবং তিনি খুব সুকৌশলী ব্যক্তি। ধনী ব্যক্তি হওয়ায় তিনি কৌশল করে টাকা ছিটিয়ে এসব কর্মকান্ড করে বেড়াচ্ছেন। তাতে লাভ হবে না। নৌকায় বিজয়ী হবে।

আরও পড়ুন


মসজিদ কমিটি নিয়ে বিরোধ, দুই ভাইকে পিটিয়ে হত্যা

news24bd.tv এসএম