ভাতিজা হত্যা মামলা: হাইকোর্টে খালাস পেলেন সৎ চাচা
ভাতিজা হত্যা মামলা: হাইকোর্টে খালাস পেলেন সৎ চাচা

ফাইল ছবি

ভাতিজা হত্যা মামলা: হাইকোর্টে খালাস পেলেন সৎ চাচা

অনলাইন ডেস্ক

রংপুরে ভাতিজা হত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি সৎ চাচাকে খালাস দিয়েছেন হাইকোর্ট। রোববার (১২ ডিসেম্বর) আসামির আপিল গ্রহণ এবং ডেথ রেফারেন্স খারিজ করে বিচারপতি এস এম এমদাদুল হক ও বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন।

আদালতে আসামি পক্ষে ছিলেন আইনজীবী দেলোয়ার হোসেন লস্কর, আনোয়ার হোসেন ও আফরোজা খান। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল হারুনর রশিদ ও সহকারি অ্যাটর্নি জেনারেল জাহিদ আহমদ হিরো।

রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সহকারি অ্যাটর্নি জেনারেল জাহিদ আহমদ হিরো।

জানা যায়, রংপুরের পীরগাছা উপজেলার গঙ্গা নারায়ণ এলাকার আনোয়ার হোসেনের সঙ্গে রিনা বেগমের বিয়ে হয়। রিনা বেগম আনোয়ার হোসেনের দ্বিতীয় স্ত্রী ছিলেন। তাদের রেজওয়ানুল ইসলাম নামে ৬ বছরের একটি পুত্র সন্তান ছিল। ২০০৭ সালের ১৫ মে রেজওয়ানুলকে তার সৎ দাদি নছিরন নেছা বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর রেজওয়ানের মা তার ছেলেকে বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে মাইকিং করে। পরদিন একটি পুকুর পাড়ে বালুর নিচে চাপা দেওয়া রেজওয়ানুলের মরদেহ পাওয়া যায়। রিনা বেগম পুত্র হত্যার ঘটনায় স্বামী আনোয়ার হোসেনের সৎ ভাই আসাদুল ইসলাম, তার মা নছিরন বেগমকে আসামি করে পীরগাছা থানায় একটি মামলা করেন।

বিচার শেষে ২০১৬ সালের ৪ মে আসাদুল ইসলামকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেন। এরপর ডেথ রেফারেন্স (মৃত্যুদণ্ডাদেশ অনুমোদনের নথি) হাইকোর্টে আসে। আর আসামি আপিল ও জেল আপিল করেন। দুটির একসঙ্গে শুনানি শেষে রোববার রায় দেওয়া হয়।

আইনজীবী দেলোয়ার হোসেন লস্কর বলেন, বাচ্চাটা কিভাবে দাদির কাছে গেলো। সেটি ঘটনার সাথে মিলে নাই। এসব বিষয় বিবেচনা নিয়ে আদালত খালাস দিয়েছেন।

আরও পড়ুন:

বাংলাদেশ দলকে ৩ মাস বিরক্ত করা যাবে না: পাপন

news24bd.tv/ নকিব