ভ্যাকসিন না পেয়ে হাসপাতাল ভাঙচুর করলো শিক্ষার্থীরা
ভ্যাকসিন না পেয়ে হাসপাতাল ভাঙচুর করলো শিক্ষার্থীরা

শিক্ষার্থীরা হাসপাতালে ব্যাপক ভাঙচুর চালায়।

ভ্যাকসিন না পেয়ে হাসপাতাল ভাঙচুর করলো শিক্ষার্থীরা

বেলাল রিজভী, মাদারীপুর

মাদারীপুরে করোনা ভাইরাসের ফাইজার ভ্যাকসিন না পাওয়ায় হাসপাতালের সামনে বিক্ষোভ করে একদল শিক্ষার্থীরা। এক পর্যায়ে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা হাসপাতালে ব্যাপক ভাঙচুর চালায়।

সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) সকালে জেলা সদর হাসপাতালের ছয়তলাবিশিষ্ট নতুন ভবনের নিচতলায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার পর হাসপাতাল চত্ত্বরে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।


জানা গেছে, মাদারীপুর সদরে ১৭ হাজার ৭০০ শিক্ষার্থীকে ফাইজারের টিকা দেয়া হয়েছে। এরমধ্যে রবিবার ২ হাজার ৪ জন শিক্ষার্থীকে টিকা দেয়া হয়। সোমবার সকালে জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে কয়েকশ’ শিক্ষার্থী করোনার ভ্যাকসিন দেয়ার জন্য জেলা সদর হাসপাতালে আসে। তখন হাসপাতাল থেকে জানানো হয় শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দকৃত ভ্যাকসিন এরইমধ্যে শেষ হয়ে গেছে। নতুন ভ্যাকসিন না আসা পর্যন্ত তাদের আর কোনো ভ্যাকসিন দেয়া সম্ভব নয়। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে প্রথমে বিক্ষোভ পরে হাসপাতালটিতে ভাঙচুর চালানো হয়।  

মাদারীপুর সিভিল সার্জন ডা. মুনির আহম্মেদ খান বলেন, ১৬ নভেম্বর থেকে শুরু হয়ে ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত শিক্ষার্থীকে ফাইজারের টিকা দেয়া হয়েছে। টিকা শেষ হয়ে যাওয়ায় সোমবার শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া হয়নি। টিকা না পেয়ে কিছু শিক্ষার্থী হাসপাতালে ভাঙচুর চালায়।


আরও পড়ুন:

ব্যাংক লেনদেনে মিথ্যা তথ্য দিলে জেল-জরিমানা

করোনায় ২৪ ঘণ্টায় দেশে তিনজনের মৃত্যু

পরকীয়া সন্দেহে স্ত্রী ও সন্তানকে গলা কেটে হত্যা, স্বামী আটক


তিনি বলেন, দুই-একদিনের মধ্যেই আরও অনেক টিকা মাদারীপুরে আসবে। আমি জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারের কাছে শিক্ষার্থীদের তালিকা চেয়েছি। এখন থেকে শিক্ষার্থীদের তালিকা অনুযায়ী টিকা দেয়া হবে।  

news24bd.tv/ নাজিম