ধর্ষণ অনিবার্য হলে উপভোগ করার পরামর্শ দিয়ে বিপাকে কংগ্রেস নেতা
ধর্ষণ অনিবার্য হলে উপভোগ করার পরামর্শ দিয়ে বিপাকে কংগ্রেস নেতা

সংগৃহীত ছবি

ধর্ষণ অনিবার্য হলে উপভোগ করার পরামর্শ দিয়ে বিপাকে কংগ্রেস নেতা

অনলাইন ডেস্ক

ধর্ষণ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে বিপাকে ভারতের কর্নাটকের এক প্রবীণ কংগ্রেস নেতা। বৃহস্পতিবার কর্নাটক বিধানসভায় ওই মন্তব্য করেছেন তিনি। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

কর্নাটক বিধানসভার শীতকালীন অধিবেশনে বিধানসভার প্রাক্তন স্পিকার ও কংগ্রেস নেতা কেআর রমেশ কুমার বলেন, ‘ধর্ষণ যখন অনিবার্য, তখন শুয়ে থেকে তা উপভোগ করা উচিত।

তার এই মন্তব্যে হাসিতে ফেটে পড়েন বিধানসভার সদস্যরা।  

কর্নাটক বিধানসভার বর্তমান স্পিকার বিশ্বেশ্বর হেগড়ে কাগেরিও রমেশের কথায় হাসতে শুরু করেন। বিশ্বেশ্বর বলেছেন, ‘আপনারা যা ঠিক করবেন তাতেই আমি হ্যাঁ বলব। আমি ব্যবস্থার পরিবর্তন বা নিয়ন্ত্রণ করতে তো পারব না। তাই পরিস্থিতিকে উপভোগ করতে হবে। হাউসের কার্যক্রম নিয়েই আমার চিন্তা। ’ 

স্পিকারের এই কথার পরই কংগ্রেস নেতা রমেশ ধর্ষণের সঙ্গে বিষয়টির তুলনা করে ওই বিতর্কিত মন্তব্য করেন।

যদিও এই মন্তব্যের পর বিতর্ক ছড়াতেই ক্ষমা চেয়েছেন ওই কংগ্রেস নেতা। টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘ধর্ষণ নিয়ে যে মন্তব্য আমি বিধানসভায় করেছি তার জন্য আমি সকলের কাছে ক্ষমা চাইছি। ঘৃণ্য অপরাধকে আলোকিত করা আমার উদ্দেশ্য ছিল না। শব্দ চয়নের ক্ষেত্রে ভবিষ্যতে আমি আরও সতর্ক থাকব। ’

এর আগেও ভারতের এই রাজ্যটিতে ধর্ষণ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে বিপাকে পড়েছিলেন রাজ্যটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেছিলেন, নির্জন স্থানে কোনও মহিলার পুরুষ বন্ধুদের সঙ্গে যাওয়া উচিত নয়।

আরও পড়ুন:

বিজেপির মুখ্যমন্ত্রীর প্রশ্ন, আমার স্ত্রীর প্রতি এত নজর কেন?

news24bd.tv/ নকিব