মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে বিতর্কিত পোস্ট, বাংলাদেশিদের তোপের মুখে কঙ্গনা
মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে বিতর্কিত পোস্ট, বাংলাদেশিদের তোপের মুখে কঙ্গনা

ফাইল ছবি

মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে বিতর্কিত পোস্ট, বাংলাদেশিদের তোপের মুখে কঙ্গনা

অনলাইন ডেস্ক

বলিউডে বর্তমানে বিতর্কের অপর নাম যেন কঙ্গনা রানাউত। সামাজিক বা রাজনৈতিক যে কোনো বিষয়েই বিতর্কিত মন্তব্য করার ক্ষেত্রে সেলিব্রেটিদের মধ্যে সবচেয়ে এগিয়ে তিনি।

এবার বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে কড়া সমালোচনায় পড়লেন বলিউডের ‘কুইন’ খ্যাত এই অভিনেত্রী।

বৃহস্পতিবার (১৬ ডিসেম্বর) দুপুরে ভেরিফায়েড ফেসবুক ফ্যান পেজ এবং নিজের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে কঙ্গনা এক পোস্টে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর ‘বাংলাদেশের বিজয়’ উল্লেখ না করে বলেছেন, ওই বছরের বিজয় ‘পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের বিজয়’ এবং ২০২১ সাল ভারতের বিজয়ের সুবর্ণ জয়ন্তী চিহ্নিত করেন।

 

কঙ্গনা রানাউত

ইন্ডিয়ান আর্মিদের সঙ্গে বিভিন্ন সময়ে নিজের তোলা একাধিক স্থিরচিত্র শেয়ার করে কঙ্গনা আরও লেখেন, ‘ইন্ডিয়ান আর্মড ফোর্সের সাহসিকতা ও আত্মত্যাগের প্রতি স্যালুট। ’ হ্যাশট্যাগে লিখেছেন- বিজয়দিবস, সোনালীবিজয়, অমৃতমহাউৎসব।

কঙ্গনার এমন কাণ্ড আহত করেছে বাংলাদেশি ভক্ত অনুরাগীদের। অসংখ্য মানুষ কঙ্গনার ফেসবুক ফ্যান পেজের সেই পোস্টে গিয়ে জানাচ্ছেন প্রতিবাদ।  কঙ্গনাকে ভুল শোধরাতেও বলছেন অনেকেই। বাংলাদেশের কয়েকজন তরুণ অভিনয় শিল্পীও সেখানে কঙ্গনাকে ইতিহাস বিকৃতি না করতে অনুরোধ জানিয়েছেন।

ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেতা জয় চৌধুরী প্রতিবাদ করে লিখেছেন, ‘দয়া করে ইতিহাস বিকৃতি করবেন না। এটি ভারতের নয়, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের বিজয়ের সুবর্ণ জয়ন্তী। ভারত আমাদের সহায়তা করেছে, এজন্য তাদের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। এই বিজয় অর্জনের জন্য আমরা অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছি। আমাদের আবেগে আঘাত করবেন না। ’

প্রতিবাদে শামিল হয়েছেন বাংলাদেশের উঠতি অভিনেত্রী নিশাত নাওয়ার সালওয়া। ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ এর মঞ্চ থেকে উঠে আসা সালওয়া, কঙ্গনার উদ্দেশে মন্তব্য করেন, ‘একজন পাবলিক ফিগার হিসেবে আপনার উচিত বাজে মন্তব্য করার আগে ইতিহাস সম্পর্কে আরও জ্ঞান সংগ্রহ করা। ’

 ফেসবুক পোস্ট

সালওয়া লেখেন, যুদ্ধের সময় ভারত আমাদের সাহায্য করেছিল এবং আমরা বাংলাদেশের জনগণ সত্যিই সেই সাহায্যের প্রশংসা করি, তার জন্য আমরা কৃতজ্ঞ। ১৯৭১ সালে আমরা ৩০ লাখ বীর মুক্তিযোদ্ধাকে হারিয়েছি। মাতৃভূমির জন্য তারা তাদের জীবন উৎসর্গ করেছেন। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে দীর্ঘ রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের পর আমরা আমাদের বিজয় অর্জন করেছি। বাংলাদেশ এমন একটি দেশ যার জন্ম অনেক সংগ্রাম এবং স্বাধীনতার রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের বিনিময়ে।

news24bd.tv/ নাজিম