যৌনকর্মীদের পক্ষে রায় সুপ্রিম কোর্টের
যৌনকর্মীদের পক্ষে রায় সুপ্রিম কোর্টের

সংগৃহীত ছবি

যৌনকর্মীদের পক্ষে রায় সুপ্রিম কোর্টের

অনলাইন ডেস্ক

ভারতের সুপ্রিম কোর্ট দেশটির যৌনকর্মীদের অধিকারের এক মামলায় যুগান্তকারী রায় দিয়েছে। তিন বিচারপতির বেঞ্চ তাদের রায়ে বলেছেন, ভারতে সমস্ত মানুষের সমান অধিকার। তারা কী কাজ করে, তার উপর অধিকারের তারতম্য হতে পারে না। সুতরাং, প্রতিটি রাজ্যকে বিচারকরা নির্দেশ দিয়েছেন, দ্রুত সমস্ত যৌনকর্মীকে আধারকার্ডের(জাতীয় পরিচয় পত্র) আওতায় আনতে হবে।

তাদের রেশন কার্ড দিতে হবে এবং ভোট দেয়ার অধিকার দিতে হবে। খবর ডিডাব্লিউ

দীর্ঘদিন ধরে যৌনকর্মীদের এই অধিকার  নিয়ে লড়াই করে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। দেশটির সুপ্রিম কোর্টে যৌনকর্মীদের হয়ে এই মামলা করেছিল দুর্বার মহিলা সমন্বয় কমিটি।  দীর্ঘদিন ধরে যৌনকর্মীদের হয়ে লড়াই করছে কলকাতার এই এনজিওটি।  

আরও পড়ুন


দুর্নীতি শিবচরের নির্বাচন কর্মকর্তাকে সরানোর সিদ্ধান্ত

দুর্বারের অন্যতম কর্মকর্তা মহাশ্বেতা মুখোপাধ্যায় এই মামলার বিষয়ে জানিয়েছেন, 'কোনো কোনো রাজ্যে যৌনকর্মীদের অনেক অধিকার দেওয়া হয়েছে। কোথাও আবার দেওয়া হয়নি। কোভিডের সময় বিষয়টি আরো স্পষ্ট হয়। তারপরেই আদালতে এ বিষয়ে মামলা করা হয়। গত বছরেও সুপ্রিম কোর্ট যৌনকর্মীদের অধিকারের বিষয়টি মাথায় রেখে গুরুত্বপূর্ণ রায় দিয়েছিল।

আদালতে দুর্বার জানায়,  দেশে প্রায় নয় লাখ যৌনকর্মী আছে। কোভিডের সময় দেখা যায়, এর মধ্যে অন্তত এক লাখ ৩০ হাজার যৌনকর্মীর আধারকার্ড, ভোটার কার্ড, রেশন কার্ড নেই। কোভিড লকডাউন শুরু হওয়ার পর তাদের ব্যবসা বন্ধ হয়ে যায়। কার্যত না খেতে পেয়ে মরার উপক্রম হয়েছিল তাদের।

গত বছরই এই সমস্যার সমাধান করেছিল সুপ্রিম কোর্ট। রেশন কার্ড না থাকলেও তাদের কুপন দিয়ে রেশনের খাবার তোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। রাজ্যগুলি যাতে এ কাজে যৌনকর্মীদের বাধা না দেয়, সেই নির্দেশও দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। সাম্প্রতিক রায়ে ওই যৌনকর্মীদের আধারকার্ড এবং ভোটার কার্ড দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

news24bd.tv/আলী