মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ে বিবাহিত ছাত্রীদের হল ছাড়ার নির্দেশ
মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ে বিবাহিত ছাত্রীদের হল ছাড়ার নির্দেশ

মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ে বিবাহিত ছাত্রীদের হল ছাড়ার নির্দেশ

অনলাইন ডেস্ক

টাঙ্গাইলের মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আলেমা খাতুন ভাসানী হল কর্তৃপক্ষ বিবাহিত ছাত্রীদের হলের সিট ছেড়ে দেওয়ার নোটিশ দিয়েছে।

হল কর্তৃপক্ষ জানায়, চলতি বছর বিশ্ববিদ্যালয়ের আলেমা খাতুন ভাসানী হলে সিটের জন্য অন্য বছরের তুলনায় অনেক বেশি শিক্ষার্থী আবেদন করেছেন। আবেদনের পর দেখা গেছে- হলে অনেক বিবাহিত ছাত্রী রয়েছেন। তাঁদের সিট বরাদ্দ থাকলেও তাঁরা হলে থাকেন না।

সিট ফাঁকা পড়ে থাকে। আবার কেউ কেউ সিটে অতিথিদের উঠিয়ে রেখেছেন। এ কারণে বিবাহিত ছাত্রীদের সিট বরাদ্দ বাতিলের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।  

এদিকে সিট ছেড়ে দেওয়ার নোটিশে শিক্ষার্থীদের ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

শিক্ষার্থীরা জানান, হলের প্রভোস্ট গত ১১ ডিসেম্বর হলের বোর্ডে বিবাহিত শিক্ষার্থীদের হল ছেড়ে দেওয়ার নোটিশটি দিয়েছেন।

এতে উল্লেখ করেছেন, হলের নিয়ম অনুযায়ী বিবাহিত ছাত্রীদের হলে থেকে অধ্যায়নের সুযোগ নেই। এ অবস্থায় আগামী ৩০ জানুয়ারির মধ্যে বিবাহিত ছাত্রীদের সিট ছেড়ে দেওয়ার নোটিশ দেওয়া হলো। ’

কোনো ছাত্রী বিবাহিতা হলে অবিলম্বে হল কর্তৃপক্ষকে জানাতে বলা হয়েছে। না জানালে নিয়ম ভঙ্গের কারণে জরিমানাসহ সিট বাতিল করা হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে।

কর্তৃপক্ষের এই নোটিশে শিক্ষার্থীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। বিবাহিত এক শিক্ষার্থী জানান, বিবাহিত-অবিবাহিত সবারই হলে থাকার অধিকার রয়েছে। এ ধরনের আইন অবিলম্বে বাতিল করা উচিৎ।  


আরও পড়ুন:

লাল চাল খাওয়ার আহ্বান খাদ্যমন্ত্রীর 

‘আইসোলেশন’ শেষে গণভবনে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু ছাড়া আর কোনো নাম নিতে শুনিনি: কাদের সিদ্দিকী


আলেমা খাতুন ভাসানী হলের প্রভোস্ট রোকসানা হক রিমি বলেন, নিয়মটি নতুন করে বা হঠাৎ করে আসেনি। হল প্রতিষ্ঠার সময় থেকেই এ নিয়ম রয়েছে। অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুসরণ করেই এখানে এ নিয়ম করা হয়েছে। প্রয়োজনের প্রেক্ষিতে নিয়মটি প্রয়োগ করা হচ্ছে।

news24bd.tv/ নাজিম

;