ঘরে ঢুকে গৃহবধূ্কে কুপিয়ে হত্যা
ঘরে ঢুকে গৃহবধূ্কে কুপিয়ে হত্যা

প্রতীকী ছবি

ঘরে ঢুকে গৃহবধূ্কে কুপিয়ে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক

ঘরে ঢুকে এক গৃহবধূ্কে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে হত্যা করেছে সুমন আলী নামে এক যুবক। ঘটনার পরপর হামলাকারীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। আজ মঙ্গলবার সকালে ঘটনাটি ঘটে পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার দাশুড়িয়া ইউনিয়নের মুনশিদপুর গ্রামে।  

অভিযুক্ত সুমন আলী (৩০) একই উপজেলার সরাইকান্দি গ্রামের আজগর আলীর ছেলে।

জানা গেছে, নিহত গৃহবধূ্র নাম শারমীন শিলা (৩২)।  এ ঘটনায় আহত হয়েছেন নিহতের স্বামী।  

এ ব্যাপারে ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফিরোজ কবির বলেন, তিনতলা বাড়ির তৃতীয় তলায় থাকতেন তারা। গৃহবধূ শারমীন শিলা সাংসারিক কাজ করছিলেন। স্বামী ঘুমিয়ে ছিলেন। তার শ্বশুর-শাশুড়ি হাঁটতে বের হয়েছিলেন। বাড়ির প্রধান দরজা খেলা ছিল। এ সময় অভিযুক্ত সুমন বাড়িতে ঢুকে গৃহবধূ শারমীনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকে।

চিৎকারে স্বামী রানাউর রহমান স্ত্রীকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে তাকেও আঘাত করে হামলাকারী। তার সাথে ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে হামলাকারী সুমনকে তিনতলা বাড়ির ছাদ থেকে নিচে ফেলে দেন রানাউর রহমান। পরে এলাকাবাসী তাকে আহত অবস্থায় আটক করে পুলিশে খবর দেয়। এর মধ্যে ঘটনাস্থলেই মারা যান গৃহবধূ।

আরও পড়ুন


শাশুড়িকে নিয়ে পালালেন ঘরজামাই, থানায় অভিযোগ মেয়ের! 

বিশ্ববাজারে তেলের দাম আরও কমলো   


খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত সুমনকে আটক ও গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে। আহত স্বামী রানাউর রহমানকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আর আহত অভিযুক্ত সুমনকে পুলিশি পাহারায় ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফিরোজ কবির বলেন, হত্যার সঠিক কারণ জানা যায়নি। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পূর্ব কোনো শত্রুতার কারণে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।  

news24bd.tv রিমু   

;