জয় বাংলা ভাষা, জয় বাংলা খেয়াল
জয় বাংলা ভাষা, জয় বাংলা খেয়াল

জয় বাংলা ভাষা, জয় বাংলা খেয়াল

কবীর সুমন

বেশ কিছু বাঙালি, যাঁরা হিন্দি ও হিন্দিঘনিষ্ঠ নানান ভাষায় খেয়াল শিখেছেন, গেয়ে থাকেন ও শেখান, গোঁ ধরে বসে আছেন বাংলা ভাষায় নাকি খেয়াল হয় না।  

বাংলা খেয়ালের এক পথিকৃত সঙ্গীতাচার্য সত্যকিংকর বন্দ্যোপাধ্যায় লিখেছিলেন - ইংরিজি বা চীনে ভাষাতেও খেয়াল হতে পারে যদি খেয়ালের "কায়দা"গুলো থাকে।

দীর্ঘকাল ধরে যা বুঝলাম, শিক্ষা ও কমন সেন্স বাংলার বাংলাখেয়ালবিরোধীদের কোনও ক্ষতিই করতে পারেনি। খেয়াল একটি আঙ্গিক যার জন্ম অষ্টাদশ শতকের দ্বিতীয়ার্ধে।

 

খেয়াল কথাটার মানে অপরিবর্তনসাধ্য, অচল, অনড় অনুশাসন ও এককাট্টাপনা নয়, ধর্মান্ধতা বা মতবাদান্ধতা নয় - কল্পনা। কল্পনা।

সনেট আঙ্গিকটি ইউরোপিয় ভাষা থেকে বাংলায় এসেছে। বাংলায় গদ্য ছিল না, ছোটগল্প উপন্যাস প্রবন্ধ ছিল না। ইউরোপিয় ভাষা থেকে আমদানি করা হয়েছে। হাইকুর উদ্ভব জাপানী ভাষায়। একটি বিশেষ আঙ্গিকের কবিতা। কালক্রমে পৃথিবীর বিভিন্ন ভাষায় হাইকু লেখা হয়েছে।

রবীন্দ্রনাথ বলেছিলেন Harmony বা "স্বরসঙ্গতি"র অভাবে আমাদের সঙ্গীতের একটা বড় দিক ফাঁকা পড়ে রয়েছে। যারা বলে হার্মোনি ইউরোপিয় সঙ্গীতের অঙ্গ, বাংলার সঙ্গীতে চলবে না, তারা এবারে বলবে শল্যচিকিৎসা ইউরোপিয়, অতএব বাঙালির দেহে তা চলবে না। রবীন্দ্রনাথ আরও বলেছিলেন - একদিন বাংলা গানে স্বরসঙ্গতি নিয়ে কাজ হবে। "লক্ষ্মীছাড়ার খ্যাপা হাওয়া" যার গায়ে লাগবে সে আসবে।  - হুবহু উদ্ধৃতি নয়, প্যারাফ্রেজ করে লেখা।

বাংলার বাংলাখেয়ালবিরোধীরা একটু চেষ্টা করুন রবীন্দ্রনাথের সঙ্গীতচিন্তা বইটা পড়ে দেখতে। একটু ধৈর্য ধরে পড়ুন। ভাববেন না, ওতে আপনাদের জাত যাবে না।


আরও পড়ুন:
দেশে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির আশঙ্কা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আগামী বছর নির্বাচন কমিশন আইন করা হতে পারে: হানিফ

ঘরে ঢুকে গৃহবধূ্কে কুপিয়ে হত্যা

চাকরি দেবে ইস্টার্ন লুব্রিকেন্টস্ ব্লেন্ডার্স 


উপমহাদেশের অন্তত ১২টি ভাষায় খেয়াল রচনা ও গাওয়া চলছে। বাংলাতেও হতো, মাঝে তা বন্ধ থেকেছে। কেউ কেউ সেকেলে, পৌরাণিক বাংলা ভাষায় খেয়াল লিখতে চেষ্টা করেছেন কিন্তু তা আজকের মানুষ শুনবেন না, শোনেননি বিশেষ।

এখন আবার বাংলা খেয়াল। সমসাময়িক বাংলা ভাষায় রচনা করা। আমার বাংলা খেয়ালকে যাঁরা প্রত্যাখান করছেন এবং ছলেবলেকৌশলে প্রচার করছেন যে খেয়াল নাকি বাংলা ভাষায় হয় না তাঁদের প্রতি আমার আহবান- মঞ্চে আসুন, আপনারা হিন্দি বা 

ঐধরণের ভাষায় খেয়াল গান, আমি গাই আমার/আমাদের মাতৃভাষায়। দেখা যাক সাধারণ শ্রোতার ভাল লাগে কোনটা। এমনকি অবাঙালি শ্রোতারও।

জয় বাংলা
জয় বাংলা ভাষা
জয় বাংলা খেয়াল!

(মত ভিন্নমত বিভাগের লেখার আইনগত ও অন্যান্য দায় লেখকের নিজস্ব। এই বিভাগের কোনো লেখা সম্পাদকীয় নীতির প্রতিফলন নয়। )

news24bd.tv/ নাজিম 

;