যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজ্যের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা, ফেসবুকে জানালেন নুর
যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজ্যের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা, ফেসবুকে জানালেন নুর

ফেসবুকে ছবিটি পোস্ট করেন নুর

যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজ্যের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা, ফেসবুকে জানালেন নুর

অনলাইন ডেস্ক

দেশের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে বিশ্বের কূটনৈতিক মহলে প্রভাবশালী দুই দেশ যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যর সঙ্গে আলোচনা হয়েছে বলে জানিয়েছে গণ অধিকার পরিষদের সদস্য সচিব ও ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর।  

মঙ্গলবার (২১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় নিজের ভেরিফাইড ফেসবুকে এক পোস্টের মাধ্যমে এ তথ্য জানান তিনি।  

পোস্টটিতে ঢাকাস্থ যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য দূতাবাসের নতুন রাজনৈতিক শাখা প্রধানদের সঙ্গে নিজের ছবিও শেয়ার করেন নুর। ছবিতে তার সঙ্গে গণ অধিকার পরিষদের আহবায়ক ড. রেজা কিবরিয়াকেও দেখা যায়।

 

পাঠকদের জন্য নুরের ফেসবুক পোস্টটি হুবহু তুলে ধরা হলো:-

‘ঢাকাস্থ যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য দূতাবাসের নতুন রাজনৈতিক শাখা প্রধান আর্তুরো হাইনস ও টম বার্গের সাথে দেশের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা। আলোচনায় তারা আমাদের নেতা-কর্মীদের উপর বিভিন্ন সময়ে সরকারি দলের উগ্র নেতা-কর্মীদের হামলার জন্য সমবেদনা জানিয়েছেন।  

দেশের বিচারবর্হিভূত হত্যা,গুম, ভিন্নমতের রাজনৈতিক দল ও সংগঠনের নেতা-কর্মীদের উপর সরকারি দলের উগ্র নেতা-কর্মীদের হামলা, আইনশৃঙ্খলাবাহিনী কর্তৃক হেনস্তা ও পুলিশি হেফাজতে নাগরিকদের নির্যাতন-নিপীড়ন, হত্যা ও ডিজিট্যাল নিরাপত্তা আইনে রাজনৈতিক কর্মী, সাংবাদিক এবং নাগরিকদের হয়রানি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

 নুরের ফেসবুক পোস্ট

একটা দেশে গণতন্ত্র ও আইনের শাসন না থাকলে এমন ভয়ংকর বিপর্যয় ঘটে বলে মন্তব্য করে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য আগামীতে বাংলাদেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে সহযোগিতার পাশাপাশি গণতন্ত্র, আইনের শাসন ও মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় তাদের জায়গা থেকে ভূমিকা রাখবে বলে আশ্বস্ত করেছে।

বিশেষ করে আগামীতে বাংলাদেশে সকল দলের অংশগ্রহণে তারা একটি অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচন দেখতে চায়। সেক্ষেত্রে ভোটাধিকার প্রয়োগসহ গণতান্ত্রিক অধিকারের ক্ষেত্রে জনগণকেও তারা সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানায়।  


আরও পড়ুন:
দেশে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির আশঙ্কা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আগামী বছর নির্বাচন কমিশন আইন করা হতে পারে: হানিফ

ঘরে ঢুকে গৃহবধূ্কে কুপিয়ে হত্যা

চাকরি দেবে ইস্টার্ন লুব্রিকেন্টস্ ব্লেন্ডার্স 


বাংলাদেশে গণতন্ত্রকামী ভিন্নমতের রাজনৈতিক কর্মী, সাংবাদিক ও নাগরিকদের উপর হামলা,নিপীড়নকারীদের যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য কোনভাবেই সমর্থন করে না। তাই মানবাধিকার লঙ্ঘন ও নাগরিক অধিকার হরণকারীদের বিরুদ্ধে ভবিষ্যতেও নিষেধাজ্ঞার মতো আরো কঠোর পদক্ষেপ আগামীতেও অব্যাহত থাকবে বলে মন্তব্য করেছেন।  

 নিজের ফেসবুকে ছবি দুটি শেয়ার করে নুর

দেশের স্বার্থে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষী মিশন বন্ধ ও গার্মেন্টস শিল্পের রপ্তানিতে তারা যেন কোন পদক্ষেপ না নেয় সেজন্য আমি এবং রেজা কিবরিয়া উভয় দেশকে অনুরোধ করেছি। বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ফুলব্রাইট স্কলারশিপও যেন চালু থাকে সে বিষয়ে আর্তুরোকে অনুরোধ করেছি। একই সাথে উচ্চ শিক্ষায় বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধির জন্যও আহ্বান জানিয়েছি।  

বি.দ্র.আর্তুরো সাথে আমেরিকার ক্লাবে আজকের মিটিং ও টমের সাথে রেজা ভাইয়ের বাসায় কয়েকদিন পূর্বের মিটিংয়ের ছবি। ’

news24bd.tv/ নাজিম 

;