দিশেহারা পিরোজপুরের শুঁটকি পল্লীর জেলে ও ব্যবসায়ীরা
দিশেহারা পিরোজপুরের শুঁটকি পল্লীর জেলে ও ব্যবসায়ীরা

শুঁটকি পল্লী

দিশেহারা পিরোজপুরের শুঁটকি পল্লীর জেলে ও ব্যবসায়ীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে টানা বৃষ্টিতে নষ্ট হয়েছে, লাখ টাকার শুঁটকি। মৌসুমের শুরুতে এমন বড় ধাক্কায় দিশেহারা পিরোজপুরের শুঁটকি পল্লীর জেলে ও ব্যবসায়ীরা। বলছেন, লোকসানের কারণে শ্রমিকদের বেতন পর্যন্ত দিতে পারছেন না তারা। ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছে জেলা মৎস্য অফিস।

পিরোজপুরের মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র বাদুরা। এই কেন্দ্রের অদূরেই কচাঁ নদীর পাড়ে গড়ে উঠেছে শুঁটকি পল্লী। এখানে দীর্ঘ এক যুগ ধরে বছরে প্রায় সাড়ে পাঁচ মাস চলে শুঁটকির ব্যবসা। পাওয়া যায় ফাইস্যা, লইট্যা, চিতলসহ প্রায় ৩৬ রকমের শুঁটকি।

 

জেলার চাহিদা মিটিয়ে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় যায় এ শুঁটকি। রপ্তানি হয় বিদেশেও। স্থানীয় ব্যবসায়ীরা বলছেন, অনেকের কর্মসংস্থান এ শুঁটকি পল্লীর কয়েক লাখ টাকার শুঁটকি ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে ভিজে নষ্ট হয়ে গেছে। এতে ক্ষতির আশঙ্কা করছেন তারা।

আরও পড়ুন:
দেশে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির আশঙ্কা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আগামী বছর নির্বাচন কমিশন আইন করা হতে পারে: হানিফ

ঘরে ঢুকে গৃহবধূ্কে কুপিয়ে হত্যা

চাকরি দেবে ইস্টার্ন লুব্রিকেন্টস্ ব্লেন্ডার্স 

ব্যবসায় লোকসান হওয়ায় ঠিক মতো বেতন দিতে পারছেন না মালিকরা, জানিয়েছেন শ্রমিকরা। ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে নানা উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বলে জানান, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা।

জেলা মৎস অধিদপ্তরের তথ্য বলছে, পিরোজপুরে গড়ে ওঠা এই পল্লী থেকে বছরে প্রায় দেড় কোটি টাকার শুঁটকি তৈরি হয়।  

news24bd.tv/ নাজিম