মিয়ানমার: লাশ পুড়িয়ে ফেলার ঘটনায় জাতিসংঘের তদন্তের আহ্বান
মিয়ানমার: লাশ পুড়িয়ে ফেলার ঘটনায় জাতিসংঘের তদন্তের আহ্বান

সংগৃহীত ছবি

মিয়ানমার: লাশ পুড়িয়ে ফেলার ঘটনায় জাতিসংঘের তদন্তের আহ্বান

অনলাইন ডেস্ক

২৪ ডিসেম্বর মিয়ানমারের কায়া প্রদেশে একটি গ্রামে সেনা অভিযানে শিশু ও নারীসহ অন্তত ৩৮ জনের মৃত্যু হয়। পরে তাদের লাশ আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয় বলে অভিযোগ করেছে বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন। এদিকে লাশ পুড়িয়ে ফেলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন জাতিসংঘ। পাশাপাশি এর নিরপেক্ষ তদন্তের আহ্বানও জানানো হয়েছে জাতিসংঘ থেকে।

 

এছাড়া নিন্দা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, ইউরোপীয় ইউনিয়ন।

রোববার এক বিবৃতিতে জাতিসংঘের এক কর্মকর্তা জানান, এমন ঘটনায় হতভম্ব তারা। মিয়ানমারে বেসামরিক নাগরিকদের ওপর নির্যাতন বন্ধের পাশাপাশি ওই ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্তের আহ্বান জানান তিনি। বিবৃতি দিয়েছে মিয়ানমারের মার্কিন দূতাবাসও। জড়িতদের জবাবদিহিতার আওতায় আনতে চাপ অব্যাহত রাখা হবে বলে জানায় তারা।

তবে এমন অভিযোগকে মিথ্যা বলে দাবি করেছে মিয়ানমার জান্তা সরকার।

আরও পড়ুন: 


 

ইসরায়েলে বার্ড ফ্লু: বন্যপ্রাণী বিপর্যয়ের আশঙ্কা  


গেল কয়েকদিনে সেনাবাহিনীর নির্যাতনের মুখে জীবন বাঁচাতে মিয়ানমারের কয়েক হাজার মানুষ থাইল্যান্ডের সীমান্তবর্তী অঞ্চলে আশ্রয় নিয়েছেন। গতকাল সোমবারও সেনা অভিযানের মুখে থাইল্যান্ড সীমান্তে ভিড় জমায় মিয়ানমারের কারেন প্রদেশের শত শত মানুষ। অনুপ্রবেশ ঠেকাতে সীমান্তে নিরাপত্তা জোরদার করে থাই কর্তৃপক্ষ।

উল্লেখ্য, গেলো শুক্রবার কায়া প্রদেশে শিশুসহ বেসামরিক নাগরিকদের হত্যার পর লাশ পুড়িয়ে ফেলার ঘটনা গণমাধ্যমে আসার পর থেকেই বিশ্বজুড়ে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছে মিয়ানমার সরকার।  

news24bd.tv রিমু