স্বর্ণের দোকানে চুরি: আইজিপিকে বাজুস সভাপতির চিঠি
স্বর্ণের দোকানে চুরি: আইজিপিকে বাজুস সভাপতির চিঠি

স্বর্ণের দোকানে চুরি: আইজিপিকে বাজুস সভাপতির চিঠি

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীর কাকরাইলে কর্ণফুলী গার্ডেন সিটি মার্কেটের চারতলায় দুটি স্বর্ণের দোকানে দুর্র্ধর্ষ চুরির ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলার সুষ্ঠু তদন্ত ও দোষীদের দ্রুত গ্রেপ্তার এবং সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির (বাজুস)।

এ ঘটনায় পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি)-কে পত্র দিয়েছেন দেশের ঐতিহ্যবাহী বাণিজ্য সংগঠন বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির (বাজুস) সভাপতি সায়েম সোবহান আনভীর।

পত্রে তিনি বলেছেন, জুয়েলারি দোকানের স্বর্ণালঙ্কার, ডায়মন্ড, রিয়েল স্টোন ও নগদ টাকা চুরি হওয়ায় দেশের সাধারণ জুয়েলার্স-ব্যবসায়ীদের মধ্যে শঙ্কা ও আতঙ্ক বিরাজ করছে। এ ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলার সুষ্ঠু তদন্ত ও দোষীদের দ্রুত গ্রেফতার এবং সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানান।

আজ বৃহস্পতিবার আইজিপিকে দেওয়া পত্রে এসব কথা উল্লেখ করা হয়।

পত্রের অনুলিপি দেওয়া হয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার এবং ডিএমপি রমনা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনারকে।

ওই পত্রে বাজুস সভাপতি উল্লেখ করেন, দেশের ঐতিহ্যবাহী বাণিজ্য সংগঠন বাজুস জুয়েলারি ব্যবসায়ীদের কেন্দ্রীয় সংগঠন হিসেবে গ্রাহকদের সেবা নিশ্চিত, স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের স্বার্থ সংরক্ষণ এবং দেশীয় স্বর্ণ শিল্পের পৃষ্ঠপোষকতা করে আসছে।  

আইজিপির প্রশংসা করে ওই পত্রে বাজুস সভাপতি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় এবং আপনার কর্মদক্ষতায় বাংলাদেশ পুলিশ এখন অনেক দক্ষ ও জনবান্ধব। এজন্য আপনাকে জানাই আন্তরিক ধন্যবাদ।

পত্রে বাজুস সভাপতি আইজিপিকে অবহিত করে বলেন, গত ১৭ ডিসেম্বর রাত আনুমানিক ৯টা থেকে ১৮ ডিসেম্বর সকাল ৮টা ১০ মিনিটের মধ্যে যে কোন সময় রাজধানীর রমনা মডেল থানাধীন কর্ণফুলী গার্ডেন সিটি শপিং কমপ্লেক্সে মোহনা জুয়েলার্স ও বেস্ট অ্যান্ড বেস্ট গোল্ড ক্রিয়েশন জুয়েল এভিনিউ প্রতিষ্ঠানে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি দেশের বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রচারিত হয়েছে। ভুক্তভোগী প্রতিষ্ঠান ২টি বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির সদস্য। তাছাড়া এ ধরনের ঘটনায় সাধারণ জুয়েলার্সদের মধ্যে শঙ্কা ও আতঙ্ক বিরাজ করছে।

বাজুস সভাপতি সায়েম সোবহান আনভীর পুলিশ প্রধানের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে আরও বলেন, মোহনা জুয়েলার্স ও বেস্ট অ্যান্ড বেস্ট গোল্ড ক্রিয়েশন জুয়েল এভিনিউ প্রতিষ্ঠান ২টিতে সংঘঠিত চুরির ঘটনাটি দ্রুততার সাথে তদন্ত করে দোষী ব্যক্তিদের শাস্তির আওতায় আনা হোক। চুরি হওয়া স্বর্ণালঙ্কার, ডায়মন্ড, রিয়েল স্টোন ও নগদ টাকা উদ্ধারের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি।

আরও পড়ুন:

বসুন্ধরার কম্বল পেয়ে বৃদ্ধ বললেন, ‘আল্লাহ তাগেরে বাঁচায় রাখুক’

news24bd.tv/  তৌহিদ