বাসচাপায় নিহত সেই মাঈনুদ্দিন পেল জিপিএ ৪.১৭
বাসচাপায় নিহত সেই মাঈনুদ্দিন পেল জিপিএ ৪.১৭

নিহত মাঈনুদ্দিন ইসলাম

বাসচাপায় নিহত সেই মাঈনুদ্দিন পেল জিপিএ ৪.১৭

অনলাইন ডেস্ক

সফলতার সঙ্গে ছেলের এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণের খবরে আনন্দে মিষ্টি বিতরণের কথা কিন্তু সেই খবরে কান্নায় ভেঙে পড়েন পরিবারের সদস্যরা। রাজধানীর রামপুরায় গ্রিন অনাবিল পরিবহনের একটি বাসের চাপায় নিহত মাঈনুদ্দিন ইসলাম এবার এসএসসি পরীক্ষায় কৃতিত্বের সঙ্গে পাস করেছেন। তার জিপিএ ৪.১৭।

কিন্তু আজ আর জিপিএ দিয়ে হবে কী? জীবন প্রদীপটিই যে আজ আর নেই।

বাবা-মায়ের স্বপ্ন পূরণে শত অভাবেও এগিয়ে যাচ্ছিল মাঈনুদ্দিনের লেখাপড়া। বাবা চায়ের দোকানের আয় দিয়ে ছেলেকে মানুষ করছিলেন। সেই স্বপ্ন মূহুর্তেই নিভে দেয় একটি দুর্ঘটনা।

মাঈনুদ্দিন রামপুরার একরামুন্নেছা স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছিলেন। বেঁচে থাকলে হয়তোবা বন্ধুদের নিয়ে আনন্দে ভাসতেন। তাইতো খুশির দিনে বন্ধুদের মনেও নেই আনন্দ। ফলাফলের দিনে বাসা, মহল্লা, এমনকি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও কারো মুখে হাসি নেই।

পরীক্ষার পর গত ২৯ নভেম্বর রামপুরায় বাসচাপায় নিহত হয় মাঈনুদ্দিন। তার মৃত্যুর পর আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা। গতকাল বৃহস্পতিবার প্রকাশিত ফলাফলে তার সাফল্য আবারো কাঁদাল সবাইকে।

গতকাল রামপুরার তিতাস রোডে নিজের চায়ের দোকানে বসে তাঁর বাবা আবদুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, তাঁর ছেলে চাকরি করে বাবাকে সহায়তা করতে চেয়েছিল। বলেছিল, ‘বাবা, আমি পড়াশোনা শেষ করে ব্যাংকে চাকরি করব। চাকরি পেলে তোমাকে আর কষ্ট করে চায়ের দোকান করতে হবে না।

ছেলের এসএসসির ফলের কাগজ দেখিয়ে কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন ‘পুত (ছেলে), তোরে আমি ভিক্ষা করে হলেও পড়াইতাম। তোরে নিয়ে আমার অনেক স্বপ্ন ছিল। ’

আরও পড়ুন


বাবাকে খুন করে সেপটিক ট্যাংকে লাশ রাখে ছেলে, অতঃপর...

news24bd.tv এসএম

;