মুন্সীগঞ্জে বসুন্ধরার কম্বল বিতরণ
মুন্সীগঞ্জে বসুন্ধরার কম্বল বিতরণ

বসুন্ধরার কম্বল গায়ে বৃদ্ধা।

মুন্সীগঞ্জে বসুন্ধরার কম্বল বিতরণ

অনলাইন ডেস্ক

এবারের শীতে অনেক কষ্ট পাচ্ছিলেন মুন্সীগঞ্জ সদর পৌরসভায় ৬ নম্বর ওয়ার্ডের রুহিতপুর দেওয়ানকান্দির ফটিক খান (৬৯)। শুক্রবার বসুন্ধরা গ্রুপের কম্বল পেয়ে তাঁর মুখে হাসির ঝিলিক ফুটে ওঠে।

খুশিতে তিনি বলেন, বাবারে শীতে অনেক কষ্ট পাইতাছিলাম। রাইত অইলেই শীতে কাবু কইরা ফেলায়।

এই কম্বলডা পাইয়া অনেক উপকার অইল। যারা এই কম্বলডা দিল আল্লাহ তাগোরে ভালো রাখুক। গরিবরে যেন আরো দিতে পারে।

প্রায় একই ধরনের কথা বলেন রুহিতপুর গ্রামের ৭০ বছর বয়সী পারুল বেগম।

তিনি বলেন, মন থেকে দোয়া করতাছি, যারা এই কম্বলডা দিল তাগোরে আল্লায় অনেক ভালো করব। দোয়া করি তারা যেন আমাগের মতো গরিবরে এইভাবে সহযোগিতা কইরা উপকার করে।

শুক্রবার সকাল ১১টার বসুন্ধরা গ্রুপের সহযোগিতা এবং কালের কণ্ঠ শুভসংঘের উদ্যোগে মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার মুন্সীগঞ্জ কলেজ প্রাঙ্গণে ৩০০ শীতার্তের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সদর পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবু সাত্তার মুন্সী, কালের কণ্ঠ’র মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি মো. মাসুদ খান, শুভসংঘ মুন্সীগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি আবু মুহাম্মদ রুইয়াম, সহসভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌস জুই, ফারহান আহাম্মেদ রাতুল, নাজমুল হাসান নিয়ন, শফিকুল ইসলাম আকাশ, কাজী ইমরান হোসেন, মো. আফজল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মো. সাইফুল ইসলাম রনি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওয়াশিউ রহমান বৃন্ত, নাজমুন নাহার মুনা, আলিফ মোহাম্মদ, মাহাবুব রানা, মো. বিল্লাল হোসেন, প্রিতম ঘোষ, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. সাহেল খানসহ শুভসংঘের বন্ধুরা।

এ সময় কাউন্সিলর আবু সাত্তার বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপ সব সময় মুন্সীগঞ্জের মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। তাদের মতো সবাই যদি দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়ায় তাহলে অনেকের কষ্ট লাঘব হবে।

আরও পড়ুন: 


স্বর্ণের দোকানে চুরি: আইজিপিকে বাজুস সভাপতির চিঠি

মেঘনা সিমেন্টের ১০ শতাংশ লভ্যাংশ অনুমোদন

টানা ৪র্থ বার ‘বেস্ট ব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড’ পেল বসুন্ধরা টিস্যু

পরপর দুইবার বেস্ট-ব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড স্বীকৃতি পেলো বসুন্ধরা এলপি গ্যাস

বসুন্ধরা গ্রুপের কম্বল পেল ‘শিশু পরিবারের’ শিশুরা


news24bd.tv/  তৌহিদ

;