দলের পদ হারিয়ে তৈমুর বললেন ‘আলহামদুলিল্লাহ’
দলের পদ হারিয়ে তৈমুর বললেন ‘আলহামদুলিল্লাহ’

দলের পদ হারিয়ে তৈমুর বললেন ‘আলহামদুলিল্লাহ’

অনলাইন ডেস্ক

তৈমুর আলম খন্দকারকে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিল থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। সোমবার তাকে প্রত্যাহার করা হয়। এর আগে গত মাসে জেলা বিএনপির আহবায়ক পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয় তৈমুর আলম খন্দকারকে।

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিল থেকে প্রত্যাহার করায় দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বিএনপি নেতা তৈমুর আলম খন্দকার বলেন, এ বিষয়ে দল থেকে এখনো আমাকে কিছু জানায়নি।

যদি এটা সত্য হয়ে থাকে তবে আলহামদুলিল্লাহ।

তিনি বলেন, আমি মনে করি বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান একটা সময়োচিত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তিনি আমাকে জনগণের জন্য মুক্ত করে দিয়েছেন। এখন আমি সেই রিকশাওয়ালা, ঠেলাগাড়িওয়ালাদের তৈমুর আবারো তাদের কাছে ফিরে যাব। আমি গণমানুষের তৈমুর, আবারো গণমানুষের কাছে ফিরে যাব।

এ সময় তৈমুর আলম খন্দকার আরও জানান, ২০১১ সালে দল নমিনেশন দিয়েছিল। সেবার দল সিদ্ধান্ত দিয়েছিল। তাদের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে আমি নির্বাচন থেকে পাঁচ ঘণ্টা আগে সরে গেছি। আমি আজ পর্যন্ত আমার দলকে প্রশ্ন করিনি কেন আমাকে সরিয়ে দেওয়া হলো, কেন প্রত্যাহার করা হলো। তবে সেই নির্বাচনের ফলাফলে দল বা জাতি কোনো উপকৃত হয়েছে কিনা জানি না, তবে নৌকার প্রার্থী মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন।

যে দেশের মধ্যস্থতায় যুদ্ধবিরতি

বাংলাদেশে চন্দ্রগ্রহণ

তিনি বলেন, আমার ভাগ্যের মালিক একমাত্র আল্লাহ। অন্য কেউ আমার ভাগ্যের মালিক এটা আমি বিশ্বাস করি না। আপনারা জানেন আমি যেসব সংগঠন করি হকার, হোটেল শ্রমিক, খেটে খাওয়া মানুষের সংগঠন করি। এ সংগঠনগুলো সিটি করপোরেশন বা পৌরসভার সঙ্গে সরাসরি সম্পৃক্ত। তাদের একটা দীর্ঘদিনের দাবি ছিল আমি পৌরসভা বা সিটি করপোরেশনের দায়িত্ব নেব। জনগণ আমার সাথে আছেন, ইনশাআল্লাহ সেই প্রতিফলন ঘটবে ১৬ জানুয়ারির নির্বাচনে।

news24bd.tv/আলী