নিজেই নিজেকে বলছেন ‘আহা কি দারুন লিখেছে লোকটা’!
নিজেই নিজেকে বলছেন ‘আহা কি দারুন লিখেছে লোকটা’!

গুলজার হোসেন উজ্জল

নিজেই নিজেকে বলছেন ‘আহা কি দারুন লিখেছে লোকটা’!

গুলজার হোসেন উজ্জল

ফেসবুকে সাধারণত শিল্পী ও লেখকরা তাদের গান ও লেখালেখি প্রকাশ করে থাকেন পাঠক-শ্রোতাদের মাঝে ছড়িয়ে দেবার জন্য। সবার মন্তব্য উৎসাহ উপভোগ করেন। প্রেরণা খুঁজে নেন। পাঠকরা অসাধারণ বলেন।

তারা লাইক, লাভ রিয়েকশন দিয়ে পাঠকদের সাথে নিজের অসাধারণত্ব উদযাপন করেন।

একজন লেখককে চিনি যিনি নিজের লেখা প্রকাশ করেন। লেখার আগে নিজের লেখা সম্পর্কে উচ্ছ্বাসপূর্ণ মন্তব্য করেন। মাঝে মাঝে নিজেই নিজের লেখার মূল্যায়ন ও আলোচনা করেন। মাঝে মাঝে এই লেখাটি কেন বাংলা সাহিত্যের অনন্য সৃষ্টি সেটাও ব্যাখ্যা সহকারে পাঠককে বুঝিয়ে দেন।

ফেসবুক আমাদেরকে প্রচারের নতুন জগতে নিয়ে গেছে। আগে সম্পাদকদের তোয়াজ করে/তোফা দিয়ে লেখা ছাপানোর চল ছিল। সাংবাদিকদের দিয়ে প্রশংসা লিখিয়ে নেওয়ার চলও ছিল। ফেসবুক সেখান থেকে মুক্তি দিয়েছে।

এরপর এলো ফেবুতে সেলেব ফেসবুকারদের দিয়ে রিভিউ লেখানোর যুগ। এখন বোধ হয় নিউ এরা। নিজেই নিজের লেখার প্রশংসা এবং রিভিউ। নিজেই নিজকে বলছেন "আহা কি দারুন লিখেছে লোকটা"!

বিশ্বাস করুন একজন মিডিওকার, মোটামুটি বিখ্যাত লেখক সম্প্রতি এমনটাই লিখেছেন।

(সোশ্যাল মিডিয়া বিভাগের লেখার আইনগত ও অন্যান্য দায় লেখকের নিজস্ব। এই বিভাগের কোনো লেখা সম্পাদকীয় নীতির প্রতিফলন নয়। )

আরও পড়ুন


কক্সবাজারে দোকানে ঢুকে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

news24bd.tv এসএম

;