কক্সবাজারে ধর্ষণ: মূলহোতা আশিক ৩ দিনের রিমান্ডে
কক্সবাজারে ধর্ষণ: মূলহোতা আশিক ৩ দিনের রিমান্ডে

ধর্ষণের মূলহোতা আশিকুল

কক্সবাজারে ধর্ষণ: মূলহোতা আশিক ৩ দিনের রিমান্ডে

অনলাইন ডেস্ক

কক্সবাজারে এক নারী পর্যটককে ধর্ষণের মূলহোতা আশিকুল ইসলামের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (০৪ জানুয়ারি) দুপুর ১২টার দিকে কক্সবাজার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক আবুল মনসুর ছিদ্দিকি আশিকের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মহিউদ্দীন। তিনি বলেন, রোববার আশিককে কক্সবাজার কারাগারে আনার পর সোমবার দুপুরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে আবেদন করে পুলিশ।

আদালত আবেদন আমলে নিয়ে আজ মঙ্গলবার ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত বছরের ২২ ডিসেম্বর স্বামী-সন্তানকে জিম্মি ও হত্যার ভয় দেখিয়ে এক নারী পর্যটককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে। পরে ওই নারীর স্বামী বাদী হয়ে চারজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত পরিচয় আরো তিন জনসহ মোট সাতজনকে আসামি করে কক্সবাজার সদর থানায় নারী নির্যাতন আইনে মামলা করেন।

মামলায় নাম উল্লেখ করা চার আসামি হলেন- কক্সবাজার শহরের মধ্যম বাহারছড়া এলাকার আশিকুল ইসলাম, মোহাম্মদ শফি ওরফে ইসরাফিল হুদা জয় ওরফে জয়া, মেহেদী হাসান বাবু ও জিয়া গেস্ট ইন হোটেলের ম্যানেজার রিয়াজ উদ্দিন ছোটন। গত ২৬ ডিসেম্বর রাতে মাদারীপুর থেকে আত্মগোপন অবস্থায় মূলহোতা আশিককে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

আশিককে গ্রেপ্তারের পর র‌্যাব জানায়, চাঁদা ‘না দেওয়ার’ কারণে কক্সবাজারে ওই নারী পর্যটককে ধর্ষণ করার কথা আশিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন। এদিকে
আইনগত প্রক্রিয়া শেষে রোবাবর সকালে আশিককে ঢাকা থেকে কক্সবাজার কারাগারে নেওয়া হয়। আশিক কক্সবাজার শহরের বাহারছড়া এলাকার বাসিন্দা মৃত আব্দুল করিমের ছেলে।

আরও পড়ুন


ছিনিয়ে নেওয়া সেই আসামি হাতকড়াসহ আবারও গ্রেপ্তার

news24bd.tv এসএম